অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২২শে মে ২০২২ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯


আর্থিক প্রতিষ্ঠানের নতুন সুদহার, ১ জুলাই থেকে কার্যকর


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯শে এপ্রিল ২০২২ ভোর ০৫:০১

remove_red_eye

৩৪

ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর আমানত, ঋণ বা বিনিয়োগের নতুন সুদহার বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে নতুন সুদহার কার্যকর হবে। 

সোমবার (১৮ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে।

 

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর আমানত সংগ্রহ ও ঋণ, লিজ, বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান বিদ্যমান বাজার হারের সঙ্গে সামঞ্জস্য না রেখে তুলনামূলক উচ্চ সুদ বা মুনাফার হারে আমানত সংগ্রহ করছে। ফলে, অযৌক্তিকভাবে প্রতিষ্ঠানগুলোর তহবিল ব্যয় বাড়ছে। এর প্রভাবে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো উচ্চ মুনাফা বা সুদে গ্রাহকদের ঋণ সুবিধা দিচ্ছে। গ্রহীতার ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা কমে যাচ্ছে, খেলাপি ঋণের পরিমাণ ও হার বাড়ছে এবং উৎপাদনসহ সামগ্রিক অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।

এমন অবস্থায় আমানত সংগ্রহ ও ঋণ, লিজ, বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হার যৌক্তিকীকরণের মাধ্যমে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের আমানতের ওপর সুদ ও মুনাফার হার সর্বোচ্চ ৭ শতাংশ এবং সব ধরনের ঋণ/লিজ বিনিয়োগের ওপর সুদ/মুনাফার কার্যকরী হার সর্বোচ্চ ১১ শতাংশ নির্ধারণ করা হলো। এ নির্দেশনা ১ জুলাই, ২০২২ তারিখ থেকে কার্যকর হবে।

নির্দেশনা কার্যকর হওয়ার পর নতুনভাবে নেওয়া আমানত এবং বিদ্যমান ও নতুনভাবে মঞ্জুর করা সব ঋণ, লিজ, বিনিয়োগের সুদ বা মুনাফার হার এ নির্দেশনার সর্বোচ্চ সুদ বা মুনাফার হারের বেশি হবে না।

 

তবে, এ নির্দেশনা কার্যকর হওয়ার আগে নেওয়া আমানতের ক্ষেত্রে পূর্ব ঘোষিত সুদ বা মুনাফার হার ওই আমানতের বর্তমান মেয়াদপূর্তির পর এ নির্দেশনা অনুযায়ী নির্ধারিত হবে।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এর ১৮ (ক)(ঘ)ও (ছ) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

এর আগে ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ক্রেডিট কার্ড ছাড়া ব্যাংকের সব ধরনের ঋণের সুদহার ৯ শতাংশে বেঁধে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ফলে, নতুন ও পুরনো সব ধরনের ঋণের সুদের হার হয় ৯ শতাংশ।