অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারী ২০২২ | ৫ই মাঘ ১৪২৮


মনপুরায় পরীক্ষার আগে টিকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থী


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৯শে নভেম্বর ২০২১ রাত ১০:০৪

remove_red_eye

৯৪



১২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকায় ফাইজারের টিকা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না



কামরুল ইসলাম: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভোলা জেলার ৭ উপজেলার মধ্যে ৬ টি উপজেলায় এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের জন্য টিকা দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু জেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ মনপুরা উপজেলায় টিকার কোন ক্যাম্পে স্থাপন না করার ৩৯২ পরীক্ষার্থী টিকাদান থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এদিকে মনপুরা ছাড়াও জেলার অন্যান্য উপজেলার এখনো শিক্ষা এইচএসসি ও আলিম সকল পরীক্ষার্থীর এখন অধিকার আওতায় আসেনি । অথচ পরীক্ষার আর মাত্র দুই দিন বাকি ।

জেলা শিক্ষা রিসার্স অফিসার নূরে আলম সিদ্দিকী জানান, জেলায় মোট ১১ হাজার ৯২২ জন এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থীর মধ্যে রবিবার পর্যন্ত ৮ হাজার ৮৫৩ জন পরীক্ষার্থীকে ফাইজার ১ম ডোজ টিকার আওতায় আনা হয়েছে। এখনো ৩ হাজার ৬৯ জন এইচএসসি ও সমমানের শিক্ষার্থী টিকার আওতায় আসেনি। তবে বাকি থাকা শিক্ষার্থীরা চাইলে এখানো টিকা নিতে পারবেন। বর্তমানে জেলায় মোট চারটি কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হচ্ছে।

ভোলা সিভিল সার্জন কে এম শফিকুজ্জামান জানান, মনপুরা উপজেলায় ১২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকায় সেখানে ফাইজারের টিকা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে দুর্গম এলাকা হিসেবে পর্যাক্রমে মনপুরায় টিকা দেওয়ার জন্য একটি পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।