অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭ই আশ্বিন ১৪২৮


১৫ আগস্টে জিয়া ও ২১ আগস্টের নেপথ্যে ছিল তার পুত্র তারেক: তোফায়েল আহমেদ


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১শে আগস্ট ২০২১ রাত ১০:২৪

remove_red_eye

১২৩



২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা   দিবস উপলক্ষে ভোলায় আ’লীগের উদ্দ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য  তোফায়েল আহমেদ বলেছেন , ৭৫ এর ১৫ আগস্টে হত্যাকান্ডের নেপথ্যে ছিলেন জিয়াউর রহমান আর ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার নেপথ্য নায়ক ছিলো তার ( জিয়ার) পুত্র তারেক রহমান। নেপথ্যের কুশিলবদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান আওয়ামী লীগের প্রবীন এই নেতা। ভোলা জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবসে শনিবার জেলা পরিষদ হল রুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা ও নিহতদের স্মরণে দোয়া অনুষ্ঠানে ঢাকা থেকে ভাচুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তোফায়েল আহমেদ।

 এ সময় তিনি বলেন দেশি ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীরা চেয়ে ছিল বঙ্গবন্ধুর রক্তের কেউ যেন বেঁচে থাকতে না পারে ,  মাস্টার প্লান করে প্রথম ১৫ আগস্ট হামলা  চালিয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে। ওই সময় সৌভাগ্যক্রমে দেশের বাইরে থাকায় বেঁচে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বোন শেখ রেহানা। ওই পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই ২১ আগস্ট ফের শেখ হাসিনাকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়। ১৯৮৮ সাল থেকে একের পর হত্যার চেস্টা করা হয়। ষড়যন্ত্রকারীরা আজও ষড়যন্ত্র করে বেড়াচ্ছে বলেও সকলকে সর্তক করেন দলের প্রবীন এই নেতা। তাই ষড়ন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে হবে। এদের বিচার করতে হবে।  করোনা পরিস্থিতিতে  প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সকল পদক্ষেপ দেশে ও দেশের বাইরে প্রসংশিত হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকে চলার পরামর্শ দেন সাবেক এই মন্ত্রী।
 জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এ্যাডভোকেট সৈয়দ আশরাফ হোসেন লাভুর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, উপেজলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোঃ মোশারফ হোসেন,  দলের জাতীয় পরিষদের সদস্য হামিদুল হক বাহালুল, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগ সম্পাদক শাহ আলী নেওয়াজ পলাশ, জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি শাহেআলম ,  স্বেচ্ছাসেবক লীগ যুগ্ম আহŸায়ক আবিদুল আলম, যুব মহিলালীগ আহবায়ক খাদিজা আক্তার স্বপ্না , তাঁতি লীগের সভাপতি এনামুল হক ফরমান, কৃষক লীগ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম,  জেলা মৎস্য লীগ সভাপতি মোঃ হাসান, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নেওয়াজ শরীফ কুতুব । পরে নিহতদের স্মরণে দোয়া পরিচালনা করেন কোর্ট মসিজিদ খতিব মাওলানা মোঃ মাকসুদ উল্লাহ আমেনী।