অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭ই আশ্বিন ১৪২৮


ভোলায় করোনার প্রথম দফায় গণটিকা পাবে ৪৬ হাজার মানুষ


অচিন্ত্য মজুমদার

প্রকাশিত: ৬ই আগস্ট ২০২১ রাত ০১:৩৩

remove_red_eye

১৪৯

অচিন্ত্য মজুমদার ::  ভোলা জেলায় আগামী ৭ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে গ্রাম পর্যায়ে করোনাভাইরাসের গণ টিকাদান কার্যক্রম। টিকাদান কেন্দ্র গুলোতে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গেলেই টিকা নেওয়া যাবে। গণটিকা দানের দিনে জেলায় মোট ৬৮টি ইউনিয়ন ও ৩টি পৌরসভায় প্রথম পর্যায়ে মোট ৪৬ হাজার ২০০ জনকে টিকার আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

 

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে (৫ই আগস্ট) ভোলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সভাকক্ষে ‍‍‌"কোভিড -১৯ টিকাদান কার্যক্রম" বিষয়ক প্রেস কনফারেন্সে এসব তথ্য তুরে ধরেন নবাগত সিভিল সার্জন ডাঃ কেএম শফিকুজ্জামান।  

এসময় তিনি আরো জানান, আগামী ০৭ আগস্ট থেকে ভোলার ৬৮টি ইউনিয়নে এবং ভোলা, লালমোহন ও চরফ্যাশন পৌরসভায় ভ্যাকসিন দেয়া শুরু হবে। প্রতিটি ইউনিয়নে ১টি করে টিকা কেন্দ্রে ৩টি বুথে ৬০০ জনকে টিকার আওতায় আনা হবে।

প্রখম পর্যায়ে  ৬৮টি ইউনিয়ন ও ৩টি পৌরসভায় (ভোলা, চরফ্যাশন ও লালমোহন) মোট ৪৬ হাজার ২০০ ডোজ টিকা দেয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে ইউনিয়গুলোর ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হলেও পর্যায়ক্রমে প্রতিটি ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের এ ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে।

এসময় তিনি আরো বলেন, প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় স্থানীয় জন প্রতিনিধিদের মাধ্যমে তালিকা তৈরী করে রেজিস্ট্রেশন শুর করা হবে। এক্ষেত্রে নারী, বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধীরা অগ্রাধীকার পাবেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। এছাড়া টিকা গ্রহণকারীরা টিকা নেওয়ার পর অন্তত ১ঘন্টা কেন্দ্রে অবস্থান অবস্থান করতে হবে বলে তিনি জানান।  

আগামী ৭ আগস্ট সকাল ৯টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত এই টিকা প্রদান কার্যক্রম চলবে। এর পাশাপাশি ভোলা সদর হাসপাতালের টিকা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, গত ৭ ফেব্রুয়ারী ৯২ হাজার ৫০০ ডোজ  ভারতের স্ট্রেজেনিকা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তারা পেয়েছেন। এর মধ্যে ৭৩ হাজার ৪৪১ জনকে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেয়া হয়।  ভ্যাকসিন সল্পতার কারণে এসময় ১৫ হাজার ৫৫৩ জন দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারেনি। চলতি মাসের ৪ আগস্ট ১৬ হাজার স্ট্রেজেনিকা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তারা হাতে পেয়েছেন।  গণটিকা কার্যক্রমের পরপরই যারা দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করতে পারেনি তাদেরকে দেওয়া হবে।   

অপরদিকে ১৯ জুন ১ লক্ষ ০৫ হাজার ৬০০ ডোজ চিনের সিনোফার্মের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ভোলা আসে। ইতি মধ্যে ৩২ হাজার ৬৩৬ জনকে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হয়ে । এখনও ৭২ হাজার ৯৬৪ ডোজ টিকা মজুদ রয়েছে বলে জানান তিনি।   
 
সিভিল সার্জন ডাঃ কে এম শফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ভোলা প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আরটিভি ও যুগান্তর প্রতিনিধি অমিতাভ অপু, এসএটিভি ও দৈনিক নয়াদিগন্তের প্রতিনিধি এ্যাডভোকেট সাহাদাত শাহিন, একাত্তর টিভি প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম, ডিবিসি নিউজ ও দি ডেইলী অবজারভার প্রতিনিধি অচিন্ত্য মজুমদার, বাসস প্রতিনিধি হাসনাইন আহমেদ মুন্না, চ্যানেল ২৪ প্রতিনিধি আদিল হোসেন তপু প্রমুখ।