অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২৫শে জুলাই ২০২১ | ১০ই শ্রাবণ ১৪২৮


ভোলার ইলিশায় অটোরিক্সার চাপায় শিশু নিহত


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩ই জুন ২০২১ রাত ১১:৪৮

remove_red_eye

১১৩

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশায় অটোরিকশা চাপায় সুমাইয়া (৭) নামের এক শিশুর নিহত হয়েছে। আজ রবিবার (১৩ জুন) বিকালের দিকে
পূর্ব ইলিশা ৬নং ওর্য়াডের ইলিশা ইসলামিয়া মডেল কলেজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত সুমাইয়া (৭) সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা চর আনন্দ পার্ট-৩, ৬নং ওর্য়াড তেমাথা দুলাল ব্যাপারি বাড়ির মোঃ জসিম এর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত সুমাইয়া দুপুরের ভাত খেয়ে বাড়ির সামনে রাস্তায় এসে খেলা করছিলো। এমন সময় বেড়ির উপর থেকে যাত্রীবোঝাই একটি অটোরিকশা (বোরাক) পিছন থেকে তাকে বাড়ি দেয়। এসময় রক্তাক্ত অবস্থায় অটোরিকশার ড্রাইবার সুমাইয়াকে নিয়ে অন্য একটি অটোরিকশায় করে ভোলা সদর হাসপাতালে উদ্দেশ্য চলে আছে। কিন্তু আশার পথেই সুমাইয়ার মৃত্যু হয়। এসময় ঘাতক অটোরিকশা ড্রাইবার ইলিশা বাসস্ট্যান্ডে তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে ইলিশা বাসস্ট্যান্ড থেকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন।
ভোলা সদর হাসপাতালে সূত্রে জানাযায় বিকেল ৪ টার সময় কিছু লোক রক্তাক্ত অবস্থায় ৭ বছর বয়সি এক শিশুকে নিয়ে আসে। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্য ঘোষণা করেন।
ভোলার ইলিশা পুলিশ ফাঁড়ির তদন্ত কেন্দ্র'র ইন-চার্জ আনিসুর রহমান জানান, আজ বিকেলের দিকে ইলিশা লঞ্চঘাট থেকে যাত্রীনিয়ে আটোরিকশা (বোরাক) ভোলা উদ্দেশ্য যাচ্ছিল তখন রাস্তার পাশে থাকা সুমাইয়া নামের এক শিশুকে চাপা দেয়। পরে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে অটোরিকশা (বোরাক) কে জব্দ করি এবং আটোরিকশা ড্রাইবার পালিয়ে যায়।এখন পর্যন্ত পরিবারের পক্ষে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।