অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল ২০২৪ | ৯ই বৈশাখ ১৪৩১


সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মাহবুব উদ্দিন খোকন, সম্পাদক শাহ মঞ্জুরুল


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ই মার্চ ২০২৪ সন্ধ্যা ০৬:৩৫

remove_red_eye

৩৯

দেশের আইনজীবীদের সর্বোচ্চ বার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ সেশনের নির্বাচনে সভাপতি পদে ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন ও সম্পাদক পদে শাহ মঞ্জুরুল হক নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন সংক্রান্ত উপ কমিটির আহবায়ক সিনিয়র এডভোকেট বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের রাতে এ ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সাদা প্যানেল সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে। ১৪ টি পদের মধ্যে সম্পাদকসহ সাদা প্যানেল ১০ পদে নির্বাচিত হয়েছে। অপরদিকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য সমর্থিত নীল প্যানেল সভাপতিসহ ৫ পদে বিজয়ী হয়েছে।
সাদা প্যানেল থেকে বিজয়ী  হলেন- সম্পাদক শাহ মঞ্জুরুল হক, দুজন সহ-সভাপতি পদে রমজান আলী শিকদার ও দেওয়ান মোহাম্মদ আবু ওবায়েদ হোসেন সেতু, কোষাধ্যক্ষ পদে মোহাম্মদ নুরুল হুদা আনসারী, দুটি সহ-সম্পাদক পদে হুমায়ুন কবির ও হুমায়ুন কবির পল্লব, সদস্য পদে-
রাশেদুল হক খোকন, রায়হান রনী, বেলাল হোসেন শাহীন, খালেদ মোশাররফ রিপন।
নীল প্যানেল থেকে বিজয়ীরা হলেন- সভাপতি পদে এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, সদস্য পদে-সৈয়দ ফজলে এলাহি অভি, ফাতিমা আক্তার ও মো. শফিকুল ইসলাম শফিক।
দুই প্যানেলের বাইরেও সভাপতি পদে ইউনুছ আলী আকন্দ এবং এম কে রহমান প্রার্থী ছিলেন। এছাড়া সম্পাদক পদে সাদা ও নীল প্যানেলের বাইরে নাহিদ সুলতানা যুথি ও ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভূইয়া প্রার্থী ছিলেন। কোষাধ্যক্ষ পদে সাদা ও নীল প্যানেলের বাইরে সাইফুল ইসলাম প্রার্থী ছিলেন।
২০২৪-২৫ মেয়াদে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার) নির্বাচনের জন্য গত ১১ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন সমিতির বর্তমান সম্পাদক আব্দুন নূর দুলাল। তফসিলে ৬ ও ৭ মার্চ ভোট গ্রহণের দিন ধার্য করা হয়।
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার) সভাপতি, সম্পাদকসহ মোট ১৪টি পদে নির্বাচন হয়ে থাকে।
সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ সেশনের নির্বাচনের দুইদিনব্যাপী ভোটগ্রহণ বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। ভোটগণনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন দিবাগত রাতে প্রার্থী ও তাদের সমর্থক আইনজীবীদের মধ্যে মতপার্থক্য হয়। এ কারণে ভোট গণনা দেরিতে শুরু হয়। সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি অডিটোরিয়ামে এ নিয়ে আইনজীবী এক সহকারী এটর্নি জেনারেলকে নাজেহালের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে সম্পাদক পদে প্রার্থী ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস (কাজল) ও এডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথিসহ ২০ জনের নামোল্লেখ করে শাহবাগ থানায় মামলা হয়েছে। এই মামলায় সুপ্রিমকোর্ট বার এর সাবেক সম্পাদক ও এ নির্বাচনে নীল প্যানেলের সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার মো.রুহুল কুদ্দুস কাজলসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
উৎসবমূখর পরিবেশে ৬ ও ৭ মার্চ  সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির দুইদিনব্যাপী  নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়। দুইদিনে ৭ হাজার ৮৮৩ জন আইনজীবীর মধ্যে ৫৩১৯ জন আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। সুপ্রিমকোর্ট বার ভবনের মিলনায়তনে স্থাপিত ৫০টি বুথে একযোগে ভোটগ্রহণ করা হয়।
সর্বোচ্চ আদালত প্রাঙ্গণে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে ব্যাপক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপস্থিতি ছিল।

 

সুত্র বাসস