অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল ২০২৪ | ৯ই বৈশাখ ১৪৩১


প্রধানমন্ত্রী নারীদের সুরক্ষা ও উন্নয়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন : অর্থ প্রতিমন্ত্রী


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ই মার্চ ২০২৪ সন্ধ্যা ০৬:৩৩

remove_red_eye

২৭

অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের সার্বিক সুরক্ষা ও উন্নয়নে সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।
তিনি বলেন, 'মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সকল আন্দোলন সংগ্রামে নারীদের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। স্বাধীনতা যুদ্ধে সরাসরি অংশগ্রহণের পাশাপাশি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নানাভাবে এদেশের নারীরা সহায়তা করেছেন।'  
আজ রাজধানীর ডিএসই টাওয়ারে ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশন (আইএফসি) ও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-র যৌথ উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘রিং দ্যা বেল ফর জেন্ডার ইকুয়েলিটি ২০২৪’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে অর্থ প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নারী-পুরুষ সমতার বীজ বপন করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু নারীদের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক ক্ষমতায়নে সাংবিধানিক স্বীকৃতির পাশাপাশি সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসন প্রবর্তনসহ নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। প্রথম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায়ও এর প্রতিফলন ছিল।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশের একমাত্র রাজনৈতিক দল যেটি দলীয় সনদ ও নির্বাচনী ইশতেহারে নারী-পুরুষ সমানাধিকারের কথা উল্লেখ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লিঙ্গ সমতাকে প্রাধান্য দিয়ে জেন্ডার বাজেটিং-সহ অন্যান্য কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের নারীরা অত্যন্ত দক্ষতা ও সফলতার সাথে প্রতিটি ক্ষেত্রে কাজ করছে। মেয়ে শিক্ষার্থীদের মায়েদের মোবাইল ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে উপবৃত্তির টাকা প্রদানের মাধ্যমে নারীশিক্ষাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের আত্মবিশ্বাসে বলীয়ান হয়ে বিপুল কর্মোদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান অর্থ প্রতিমন্ত্রী।
ওয়াসিকা আয়শা খান বলেন, নারী-পুরুষ সমতার কাংখিত লক্ষ্য অর্জনে সামষ্টিক প্রচেষ্টার প্রয়োজন। সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি উদার করার পাশাপাশি নারীদের এগিয়ে নিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। যৌতুক, বাল্যবিবাহ ইত্যাদি সামাজিক প্রতিবন্ধকতা দূর করে নারীর আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে সকলকে সহযোগিতা করতে হবে। এসময় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের অধীন প্রতিষ্ঠানসমূহে অন্তত একজন নারী স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগের আহ্বান জানান তিনি।
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-র চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. হাফিজ মোঃ হাসান বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবায়াত-উল-ইসলাম বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ পিএলসি-র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডঃ এটিএম তারিকুজ্জামান, বাংলাদেশ-নেপাল-ভুটান আইএফসি কান্ট্রি ম্যানেজার মার্টিন হলটম্যান, ইউএন গ্লোবাল কমপ্যাক্ট নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মিস শাহামিন এস জামান, ডব্লিউইই,ইউএন উইমেন-এর প্রোগ্রাম লিড মিসেস তপতী সাহা, আইএফসি-র সিনিয়র কর্পোরেট গভর্নেন্স অফিসার মিসেস কল্যাণী সন্তোষকুমার ও আইএফসি কর্মকর্তা লোপা রহমান বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশে অবস্থিত সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের ডেপুটি হেড অব কোঅপারেশন মিস করিন হেনচোজ পিগনানি অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তা প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সুত্র বাসস