অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শুক্রবার, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৭ই আশ্বিন ১৪৩০


ধূমপানমুক্ত পরিবেশ সূচকে বাংলাদেশ পিছিয়ে, ডিসিএ বাতিল সংশোধনী পাশের তাগিদ


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২৩ সন্ধ্যা ০৭:২২

remove_red_eye

৫৮

ধূমপানমুক্ত পরিবেশ সূচকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অনেক দেশ ভালো করলেও  বাংলাদেশ অনেকটাই পিছিয়ে । তবে ধূমপানের জন্য নির্ধারিত এলাকা (ডিএসএ) বাতিলের প্রস্তাব সম্বলিত খসড়া সংশোধনীটি পাশ হলে, বাংলাদেশ পিছিয়ে থাকার তালিকা খেকে বেরিয়ে আসবে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রকাশিত ‘গ্লোবাল টোব্যাকো এপিডেমিক প্রতিবেদন- ২০২৩ এবং বাংলাদেশ পরিস্থিতি ’ বিষয়ে আজ  প্রজ্ঞা (প্রগতির জন্য জ্ঞান) ও অ্যান্টি টোব্যাকো মিডিয়া এলায়েন্স (আত্মা) আয়োজিত ভার্চুয়াল বৈঠকে বক্তারা এসব কথা বলেন। ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডস (সিটিএফকে) এই আয়োজনে সহযোগিতা করে।
ভার্চুয়াল বৈঠকে আলোচনা করেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ জাতীয় তামাকবিরোধী মঞ্চের আহ্বায়ক ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ, জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল এর সমন্বয়কারী (অতিরিক্ত সচিব) হোসেন আলী খোন্দকার, সিটিএফকে এর বাংলাদেশ লিড পলিসি অ্যাডভাইজার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক কবি ও সাংবাদিক মিনার মনসুর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা’র (ডব্লিওএইচও) বাংলাদেশ অফিসের ন্যাশনাল প্রফেশনাল অফিসার ডা. সৈয়দ মাহফুজুল হক, নিউজ টুয়েন্টিফোরের প্রধান বার্তা সম্পাদক ও কথাসাহিত্যিক শাহনাজ মুন্নী প্রমুখ।
ভাচুর্য়াল বৈঠকে জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা’র এবারের প্রতিবেদনে ধূমপানমুক্ত পরিবেশের উপর বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে, যা বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত জরুরি। হোটেল, রেস্টুরেন্টসহ বিভিন্ন পাবলিক প্লেস ও পাবলিক পরিবহনে ধূমপানের জন্য নির্ধারিত এলাকা  থাকলে, অধূমপায়ীদের পাশাপাশি সেবাকর্মীরাও পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হন। থাইল্যান্ড, নেপাল, আফগানিস্থানসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বেশকিছু দেশ ধূমপানমুক্ত পরিবেশ সূচকে ভালো করলেও বাংলাদেশ এক্ষেত্রে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে। তবে ডিএসএ বাতিলের প্রস্তাব সম্বলিত খসড়া সংশোধনীটি পাশ হলে, বাংলাদেশও এসব দেশের কাতারে পৌঁছাবে।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, তামাকপণ্যের বিজ্ঞাপন ও প্রচারণা বন্ধের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ মাঝামাঝি অবস্থানে রয়েছে। তবে খসড়া সংশোধনী অনুযায়ী বিক্রয়স্থলে তামাকজাত দ্রব্য প্রদর্শন এবং তামাক কোম্পানির সিএসআর কার্যক্রম পরিচালনার সুযোগ বন্ধ হলে, বাংলাদেশ এক্ষেত্রে আরো ভালো করবে। ইতিমধ্যে বিশ্বের ৫০টি দেশ বিক্রয়স্থলে তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শন নিষিদ্ধ করেছে এবং ৬২টি দেশ তামাক কোম্পানির সিএসআর কার্যক্রম সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করেছে।
ভার্চুয়াল বৈঠকে আলোচকবৃন্দ বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০৪০ সালের মধ্যে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনের লক্ষ্যে এফসিটিসি’র আলোকে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালী করার নির্দেশনা প্রদান করেন। এই প্রেক্ষাপটে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আইন সংশোধনের উদ্যোগ গ্রহণ করে। খসড়া সংশোধনীটি বর্তমানে মন্ত্রিসভার অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। এটি দ্রুত মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপন করার আহ্বান জানান তারা।
কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, ‘শতভাগ ধূমপানমুক্ত পরিবেশ অর্জনে আমরা আফগানিস্তান ও নেপালের চেয়ে পিছিয়ে আছি। আইনের খসড়া সংশোধনীটি যাতে দ্রুত পাশ হয়- সে বিষয়ে আমাদের কাজ করে যেতে হবে, হতাশ হওয়া চলবেনা।’  মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘কোন ধূমপায়ীর নৈতিক অধিকার নেই অধূমপায়ীকে ক্ষতিগ্রস্ত করা। ধূমপানের জন্য নির্ধারিত এলাকা বাতিল সংবলিত আইনের খসড়া সংশোধনী দ্রুত পাশ করতে হবে।’  হোসেন আলী খোন্দকার বলেন, ‘আইনের খসড়ায় যেসব প্রস্তাবনা আমরা রেখেছি, সেগুলো পাশ করতে পারলে ডব্লিওএইচও’র পরবর্তী প্রতিবেদনে আমাদেরও অগ্রগতি হবে। তবে তামাক কোম্পানিগুলো এই অগ্রগতি থামিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। আমাদের এবিষয়ে সচেতন থাকতে হবে।’ মিনার মনসুর বলেন, ‘ তামাক নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি শক্তিশালী আইনগত ভিত্তি তৈরির পাশাপশি জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে।’ শাহনাজ মুন্নী বলেন, ‘হোটেল-রেস্তোরাঁয় আমরা প্রতিনিয়ত পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হচ্ছি। ধূমপানের জন্য নির্ধারিত এলাকা থাকায় এটি ঘটছে। এই বিধান বাতিল করতে হবে।’
প্রজ্ঞা’র কোঅর্ডিনেটর সাদিয়া গালিবা প্রভার সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল বৈঠকে মূল উপস্থাপনা তুলে ধরেন কর্মসূচি প্রধান হাসান শাহরিয়ার। অনুষ্ঠানে আত্মা’র কনভেনর মর্তুজা হায়দার লিটন, প্রজ্ঞা’র নির্বাহী পরিচালক এবিএম জুবায়েরসহ বিভিন্ন তামাকবিরোধী সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশ নেন।

সুত্র বাসস





বাংলাদেশের অগ্রাধিকার হচ্ছে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন : উজরা জেয়াকে প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশের অগ্রাধিকার হচ্ছে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন : উজরা জেয়াকে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী আজ জাতিসংঘে প্রদত্ত ভাষণে রোহিঙ্গা, জলবায়ু প্রসঙ্গ তুলে ধরবেন

প্রধানমন্ত্রী আজ জাতিসংঘে প্রদত্ত ভাষণে রোহিঙ্গা, জলবায়ু প্রসঙ্গ তুলে ধরবেন

বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যমান বাণিজ্য-বিনিয়োগ সম্পর্ক বাড়াতে আগ্রহী ভিয়েতনাম

বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যমান বাণিজ্য-বিনিয়োগ সম্পর্ক বাড়াতে আগ্রহী ভিয়েতনাম

রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলায় সহায়তা দিতে ওআইসি’র প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহবান

রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলায় সহায়তা দিতে ওআইসি’র প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহবান

বিআরআই বাংলাদেশের বাস্তবতার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত : চীনা রাষ্ট্রদূত

বিআরআই বাংলাদেশের বাস্তবতার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত : চীনা রাষ্ট্রদূত

নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস জানাতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সাংবাদিকতার গুরুত্ব অপরিসীম : স্পিকার

নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস জানাতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সাংবাদিকতার গুরুত্ব অপরিসীম : স্পিকার

অস্ট্রেলিয়ায় কর্মসংস্থানের জন্য গমনেচ্ছুদের প্রতি বাংলাদেশ হাইকমিশনের সতর্কবার্তা

অস্ট্রেলিয়ায় কর্মসংস্থানের জন্য গমনেচ্ছুদের প্রতি বাংলাদেশ হাইকমিশনের সতর্কবার্তা

বাংলাদেশের বদলে যাওয়ার গল্প পৃথিবীর মানুষ জানতে চায়: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

বাংলাদেশের বদলে যাওয়ার গল্প পৃথিবীর মানুষ জানতে চায়: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

আগামীকাল দেশে ফিরবেন ওবায়দুল কাদের

আগামীকাল দেশে ফিরবেন ওবায়দুল কাদের

চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ সালাউদ্দীন জাকীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ সালাউদ্দীন জাকীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

আরও...