অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২২শে মে ২০২২ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯


লালমোহনের ভিক্ষুক নাসিদা পেলেন ১৮৪ ভোট


লালমোহন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৩শে মার্চ ২০২২ রাত ১১:৪৪

remove_red_eye

৪২

 ভোলার লালমোহনের ১ নং বদরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে সেই ভিক্ষুক নাসিদা বেগম তালগাছ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৮৪ ভোট। গত সোমবার (২১ মার্চ) বদরপুর ইউপি নির্বাচনে তার কেন্দ্র ছিল ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ড। ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে প্রাপ্ত ভোটের হিসেবে তার অবস্থান রয়েছে ৬ নম্বরে। এ তিন ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ছিল ৯২৫৭। যদিও এ নির্বাচনে জামানত বাজেয়াপ্ত হয় নাসিদার। তবুও মনোবল হারাননি তিনি। আগামীতেও করতে চান জনসেবা। শেষ বয়সে নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়ী হওয়ার স্বপ্ন দেখেন তিনি। আগামী নির্বাচনেও অংশ গ্রহণ করবেন বলেও জানান নাসিদা বেগম। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পরদিনই তাকে দেখা গেছে হাতে ব্যাগ ঝুলিয়ে সাহায্যের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে।


অন্যদিকে, ইউনিয়নটির ৫ টি ওয়ার্ডে মোট ১৪ প্রার্থী সাধারণ সদস্য পদে ভোট পেয়েছেন শূন্য। এরা হলেন: ১ নং ওয়ার্ডের মোরগ প্রতীকের মো. কামরুল। ৪ নং ওয়ার্ডের ঘুড়ি প্রতীকের মো. কামাল হোসেন, আপেল প্রতীকের মো. মনির, টিউবওয়েল প্রতীকের মো. লতিফ, তালা প্রতীকের মো. হাসান, ফুটবল প্রতীকের মো. হারুন ও ভ্যানগাড়ি প্রতীকের শাহে আলম। ৫ নং ওয়ার্ডের বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকের কহিনূর বেগম, আপেল প্রতীকের মো. জুয়েল ও তালা প্রতীকের রেশমা আক্তার। ৭ নং ওয়ার্ডে মোরগ প্রতীকের জান্নাত বেগম ও ৮ নং ওয়ার্ডের মোরগ প্রতীকের জোসনা, টিউবওয়েল প্রতীকের মো. জসিম এবং আপেল প্রতীকের মো. মিলন শূন্য ভোট পান।
এদিকে, বদরপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে জয়ী লাভ করেন আনারস প্রতীকের বদরপুর ইউনিয়ন (উত্তর) যুবলীগের আহবায়ক ও বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আসাদ উল্যাহ মেলকার। তার প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা ৭হাজার ১৮৮ ভোট। অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মো. ফরিদুল হক তালুকদার নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪হাজার ৮৭৩ ভোট।
লালমোহন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আমির খসরু গাজী বলেন, সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে বদরপুর ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন নিয়ে কারও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।