অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২৫শে জুলাই ২০২১ | ১০ই শ্রাবণ ১৪২৮


লালমোহনে স্বপ্নের নীড়ে ৪০ পরিবারের নিরাপদ আশ্রয়


লালমোহন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২ই জুলাই ২০২১ রাত ১০:০৬

remove_red_eye

৩২



মো. জসিম জনি, লালমোহন : ভোলার লালমোহনে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরে স্বপ্নের নীড় পেতেছেন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবাররা। মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে বিনামূল্যে ঘর পেয়ে এসব পরিবারে দেখা দিয়েছে বাঁধ ভাঙা আনন্দ। বিভিন্ন এলাকায় যখন আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ কাজ নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে তখন ভোলার লালমোহনের এসব ঘর প্রশংসা কুড়িয়েছে সর্বত্র। প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায় মিলিয়ে মোট ৪০ টি ঘরের বরাদ্দ আসে এ উপজেলায়।
আশ্রয়ণের এসব ঘরগুলো ঘিরে বসানো হয়েছে নলক‚প। সব ঘরগুলোতে রয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। আশ্রয়ণটিতে যাতায়াতের জন্য নতুন করে একটি কাঁচা রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া এলাকায় গড়ে তোলা হয়েছে এ আশ্রয়ণ প্রকল্পটি। পৌরসভার মূল বাজার থেকে ২ কিলোমিটার দূরে প্রধান সড়কের পাশে খাস জমিতে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরগুলি নির্মাণ করায় এতে যারা বসবাস করছেন এদের পক্ষে সহজেই কর্মসংস্থান এর সুযোগ রয়েছে। প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখা যায় উপকারভোগীরা হাস মুরগি কবুতর পালন করছেন। নতুন দোকান গড়ে উঠেছে। যাতে করে স্বস্তিতে রয়েছে আশ্রয়ণের সকল বাসিন্দারা। সুন্দর ও মনোরম এ পরিবেশে যেনো নতুন এক প্রাণের স্পন্দন সৃষ্টি হয়েছে এখানে। ঘরগুলো নির্মাণ কাজ শেষে এসব বাসিন্দাদের হাতে ঘরের চাবী তুলে দেন ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন।
ভারী বর্ষণের ফলে নির্মাণ কাজে কিছুটা দেরি হলেও দ্বিতীয় পর্যায়ের ২০ টি ঘরের মধ্যে ১৯ টি ঘর পুরোপুরি নির্মাণ হয়েছে। ঘরের চাবি পেয়েছেন এমন লোকজনের কাছে ঘরের কাজের মানের বিষয়ে জানতে চাইলে তারা সন্তোষ প্রকাশ করেন।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ ঘোষ বলেন, প্রকল্পটি খালের পাড়ে হলেও এখানে আতঙ্কের কিছু নেই। কারণ অত্যান্ত সাবধানতার সহিত খাল পাড়ে মাটির বাঁধ দেয়া হচ্ছে। যদিও খালটি ভাঙনের কোনো লক্ষণ নেই।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল-নোমান বলেন, উপজেলা ভূমি অফিসের মাধ্যমে প্রথমে সঠিকভাবে ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষদের নিশ্চিত করা হয়েছে। যারা সত্যিই এর প্রাপ্য ছিলেন। অন্যদিকে কাজ চলমান সময়ে ঘরগুলোর মান রক্ষা করতে প্রতিদিন প্রকল্প এলাকাতে তদারকি করেছি। যেনো কোনো রকমে আশ্রয়ণ প্রকল্পটির মান খারাপ না হতে পারে। আশা করছি এখানের ঘরের মান ভালো রয়েছে।