অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শনিবার, ২৪শে জুলাই ২০২১ | ৯ই শ্রাবণ ১৪২৮


ভোলায় করোনা ইউনিটে যুবকের মৃত্যু


অচিন্ত্য মজুমদার

প্রকাশিত: ৪ঠা জুলাই ২০২১ সন্ধ্যা ০৬:১২

remove_red_eye

৪৬৭

অচিন্ত্য মজুমদার :: ভোলা সদর জেনারেল হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে আবদুল মালেক নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ২০ বছর বয়সী ওই যুবক জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আজ রবিবার সকাল ১১টায় হাসপাতালে আসলে তাকে করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এর পর সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ভোলার ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা: মোহাম্মদ সিরাজ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড় মানিকা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুল মালেকের ছেলে মমিন ৬ দিন ধরে জ্বর, ঠান্ডা ও ডায়রিয়ায় ভুগছিলেন। এরপর শ্বাসকষ্ট শুরু হলে ওই যুবককে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনেরা। জরুরি বিভাগে দেখানোর পর উপসর্গ দেখে তাঁকে করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দুপুরে তাঁর মৃত্যু হয়। করোনা উপসর্গ থাকায় পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া মৃত ওই যুবকের মরদেহ হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সে করে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সেখানে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী দাফন হবে বলেও সূত্র জানায়।

সিভিল সার্জর কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত জেলার সাত উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৩৭ জনে। সংক্রমিতদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৮৭ জন। নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৪৮৬ জনের। একই সময়ে জেলায় মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের। করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলার বাইরে ও উপসর্গ নিয়ে আরো অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ভোলা ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে এ পর্যন্ত ৮৫২ জন রোগী ভর্তি হন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৪২ জন। সেখানে বর্তমানে ১১ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়া উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা-বরিশাল রেফার্ড করা হয়েছে ১৩৫ জন।