অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২৫শে জুলাই ২০২১ | ১০ই শ্রাবণ ১৪২৮


লালমোহনে অপহৃত কিশোরী উদ্ধার ,আটক-৪


লালমোহন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৫শে জুন ২০২১ রাত ১০:৩৫

remove_red_eye

৬৪

লালমোহন প্রতিনিধি : ভোলার লালমোহনে কিশোরী অপহরণের একদিন পরই উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার কালমা ইউনিয়নের ৫নং চরছকিনা গ্রাম থেকে কিশোরীকে উদ্ধার ও জড়িত ৪ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, মোঃ শরিফ (২১), ফাহিমা বেগম (৩০), মোঃ তোফায়েল (৪০) ও বশির (৪০)। উদ্ধার হওয়া কিশোরী লালমোহন রমাগঞ্জ ইউনিয়নের এক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।
জানা গেছে, উপজেলার রমাগঞ্জ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড রায়চাঁদ গ্রামের মোঃ শাহাবুদ্দিন নামের প্রবাসীর স্কুল পড়ুয়া কিশোরী (১৭) কন্যাকে গত বুধবার রাতে সুযোগ বুঝে অপহরণ করে শরীফ নামে এক রাজমিস্ত্রি। সে একই এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে। শরীফ কিশোরীর বাড়িতে রাজ কাজ করার সুবাধে তাকে কুপ্রস্তাব দিত ও উত্ত্যাক্ত করতো বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে। এ নিয়ে জানাজানি হলে স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিরা শরীফকে অন্যায় থেকে ফিরে আসতে বলে। এতে ক্ষিপ্ত গত সুযোগ বুঝে মেয়েটিকে অপহরণ করে শরীফ। পরে মেয়েকে উদ্ধার ও শরীফের বিচার দাবি করে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেন কিশোরির মা খাদিজা বেগম। মামলা নং ২২।
এদিকে লালমোহন থানার পুলিশ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে অভিযান চালিয়ে উপজেলার কালমা ৫নং ওয়ার্ড চরছকিনা গ্রামে শরীফের মামার বাড়ি থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করেন এবং অপহরণে জড়িত থাকার দায়ে শরীফসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে।
লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মাকসুদুর রহমান মুরাদ বলেন, প্রবাসী শাহাবুদ্দিনের মেয়েকে অপহরণের ঘটনায় তার স্ত্রী বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। তারই সূত্র ধরে আমরা ওই কিশোরীকে উদ্ধার করতে সক্ষম হই এবং মামলার এজাহারভুক্ত ৪ আসামীকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।