অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শুক্রবার, ১৮ই জুন ২০২১ | ৪ঠা আষাঢ় ১৪২৮


চরপাতিলায় দূর্গতদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ


চরফ্যাসন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৭শে মে ২০২১ রাত ১১:১৯

remove_red_eye

৬৫

চরফ্যাশন প্রতিনিধি: ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ও পূর্ণিমার জোয়ারের চলমান প্রভাবের তৃতীয় দিনে চরপাতিলায় দূর্গতদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিকালে নৌকাযোগে চরপাতিলা এলাকার প্রায় শতাধিক পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন চর কুকরি-মুকরি ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম মহাজন।
এসময় চিড়া, মুড়ি, গুড়, লবণ, দুধ, বিস্কিট, মোমবাতি ও খাবার স্যালাইনসহ বিভিন্ন শুকনো খাবার পানিবন্দি মানুষদের হাতে তুলে দেন। তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এসব শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন বলে জানান তিনি।
অস্বাভাবিক জোয়ার উঠানামায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে চরফ্যাসনের কুকরি-মুকরি ইউনিয়নের চরপাতিলা এলাকার কয়েক হাজার মানুষ। মঙ্গলবার (২৫ মে) সকাল থেকে  ঘর-বড়ি ডুবে যাওয়ায় কাল থেকে চুলা জ্বলনি তাদের। ফলে পানিবন্দি পরিবারগুলোতে দেখা দিয়েছে শুকনো খাবারের তীব্র সংকট।
আবুল হাসেম মহাজন বলেন, ঘূর্ণীঝড় ইয়াস ও পূর্ণিমার জোয়ারের এর প্রভাবে মঙ্গলবার থেকে কুকরি-মুকরি ও চর পাতিলায় ৪ থেকে ৫ ফুট পানিতে প্লাবিত হয়েছে। সেখানে প্রায় ৯ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। পানিবন্দি পরিবারগুলোর প্রতিদিন মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ চলছে। মেঘনার পানির উত্তাল ঢেউ থাকায় প্রতিদিন পানি উঠানামা করছে।
এদিকে বুধবার (২৬ মে) দুপুরে পায়ে হেঁটে ও নৌকাযোগে চরপাতিলা এলাকার প্রায় শতাধিক পরিবারের মাঝে নগদ অর্থসহ শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন।