অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বুধবার, ২১শে এপ্রিল ২০২১ | ৮ই বৈশাখ ১৪২৮


চরফ্যাশন আইনজীবী সমিতির নব নির্বাচিত সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত


চরফ্যাসন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৫ই এপ্রিল ২০২১ রাত ১০:৩৫

remove_red_eye

৭২

চরফ্যাশন  প্রতিনিধি : ভোলার চরফ্যাশন আইনজীবী সমিতির কার্যকরী পরিষদের নবনির্বাচীত সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বিকাল ৫টায় ভোলা জেলা জজ আদালতের কক্ষে এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভোলা জেলা জজ ড.এবিএম মাহমুদুল হক,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরিফ মোহাম্মদ সানাউল হক,যুগ্ম জেলা জজ মোহাম্মদ জাকারিয়া সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ স¤পাদক এডভোকেট মোজাম্মেল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, নবনির্বাচীত সভাপতি এডভোকেট মো. লিয়াকত আলী,সাধারণ স¤পাদক এডভোকেট সিদ্দিক মাতাব্বর,কার্যকরী সদস্য এমএইচএ হিরন সহ আরও অনেকে। এ সময় অন্যন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, সহ-সভাপতি এডভোকেট মো.রমিজ উদ্দিন,সহ-সাধারণ স¤পাদক মো. লিটন হাওলাদার,ধর্ম,ক্রীড়া ও পাঠাগার স¤পাদক এডভোকেট এইচ এম জাবেদ করিম ও এডভোকেট মো.শিহাব মাহমুদ প্রমুখ। আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচীত সদস্যদের শপথ পাঠ করান ভোলা জেলা জজ ড.এবিএম মাহমুদুল হক। অনুষ্ঠানে ভোলা জেলা জজ ড.এবিএম মাহমুদুল হক বলেন, চরফ্যাশন উপজেলা একটি বৃহৎ উপজেলা এখানে খুব সহযে যেন জনগণ তাঁর আইনি বিচার পেতে পাড়ে এজন্য এমপি জ্যাকব একটি অতিরিক্ত জেলা জজ আদালত স্থাপনে ভ‚মিকা রেখেছেন। যা দেশে একটি উপজেলায় এক ও অদ্বিতীয়। চরফ্যাশন উপজেলার উন্নয়নের এ ধারাবাহীকতা বজায় থাকলে চরফ্যাশন একদিন জেলায় রূপান্তিরিত হবে। নবনির্বাচীত সাধারণ স¤পাদক এডভোকেট সিদ্দিক মাতাব্বর চরফ্যাশন আইনজীবী সমিতির প্রতিষ্ঠাতা চরফ্যাশন ও মনপুরার সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপির অক্লান্ত পরিশ্রমে চরফ্যাশনবাসী অতিরিক্ত জেলা জজ আদালত পেয়েছেন। এমপি জ্যাকব আইনের ন্যয় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে চরফ্যাশনবাসীর জন্য জজ আদালতসহ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতও স্থাপন করে দিয়েছেন। তিনি চরফ্যাশনে আইনজীবী সমিতি প্রতিষ্ঠা করে আমাদের আইনজীবীদের ধন্য করেছেন। পরে নবনির্বাচীত সদস্যরা অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। উল্লেখ্য গত ২৭মার্চ শনিবার চরফ্যাশন আইনজীবী সমিতির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।