অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শনিবার, ১৭ই এপ্রিল ২০২১ | ৪ঠা বৈশাখ ১৪২৮


চরফ্যাসনের কুকরিতে পুকুরে মিললো ৮টি বড় ইলিশ


চরফ্যাসন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০শে মার্চ ২০২১ রাত ১০:৩৬

remove_red_eye

৮৩



বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : ভোলায় একটি পুকুর সেচ করে মিললো ৮ টি বড় সাইজের তাজা ইলিশ। প্রতিটি ইলিশের ওজন প্রায় ১ কেজির মত বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। এদিকে পুকুরে ইলিশ ধরা পড়ার খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে ইলিশ মাছ দেখার জন্য ভীর জমায় স্থানীয়রা। ঘটনাটি ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার কুকরি-মুকরি ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের আমিন পুর এলাকায়  শুক্রবার (১৯ মার্চ) দুপুরের দিকে ঘটেছে।
কুকরি-মুকরি এলাকার     পরিবার উন্নয়ন সংস্থার ম্যানেজার মোঃ আনিচ হাওলাদার জানান, শুক্রবার সকাল থেকে ওই এলাকায় ইউপি চেয়ারম্যান হাসেম মহাজনের একটি মাছের ঘেড়ে সেচ করে মাছ ধরছিল স্থানীয় জেলেরা। ওই সময় অন্যন্যা মাছের সাথে ৮ টি ইলিশ পান তারা। তিনি আরো জানান, খবর পেয়ে আমি সেখানে যাই। পুকুরের তাজা ইলিশ হাতে নিয়ে ছবি তুলি। প্রথমবারের মত আমি পুকুরে ইলিশ পাওয়া খবর শুনেছি এবং দেখেছি। চরফ্যাশন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও কুকরি-মুকরি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসেম মহাজন জানান,  ওই এলাকার আমার প্রায় ২ শত শতাংশ জমির পুকুরের মাছ ধরার জন্য শুক্রবার জেলেরা রুই, কাতলাসহ বিভিন্ন মাছের সাথে ৮ টি ইলিশ মাছ পেয়েছে। তিনি আরো জানান, গত বর্ষায় জোয়ারের পানিতে পুকুরটি ডুবে যায়। ওই সময় হয়তো ইলিশ মাছ পুকুরে প্রবেশ করে কিন্তু তা বের হতে না। শুক্রবার পুকুর সেচ করে মাছ ধরার সময় ওই ইলিশ ধরা পড়ে। বরিশাল বিভাগীয় মৎস্য অফিসসের সহকারী পরিচালক এ.এফ.এম নাজমুস সালেহীন এএসএম নাজমুল সালেহীন জানান, জোয়ারের পানিতে কোন পুকুর তলিয়ে গেলে তখন হয়তো কোন ইলিশ প্রবেশ করতে পারে। পরে বের হতে না পারলে যদি পুকুরের পানি নোনা হয় এবং পুকুরে নদীর মত খাবার পায় তাহলে ইলিশ বাঁচতে পারে।