অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শনিবার, ১৭ই এপ্রিল ২০২১ | ৪ঠা বৈশাখ ১৪২৮


শশীভূষণে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় মা ও মেয়েকে মারধর


চরফ্যাসন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮ই মার্চ ২০২১ রাত ১২:২৫

remove_red_eye

৮৬

চরফ্যাসন সংবাদদাতা \ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণে সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় ওই ছাত্রী ও তার মাকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শশীভূষণ থানার রসুলপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ছাত্রীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, উপজেলার শশীভূষণ থানার রসুলপুর ১ নং ওয়ার্ডের হোসাইনিয়া দাখিল মাদ্রার সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে একই গ্রামের দুলাল রাড়ির বখাটে ছেলে নুরুল ইসলাম,জহিরুল ইসলাম ও নান্টু বেপারীর ছেলে মতিন দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো।
ওই ছাত্রীর পিতা মোঃ মনির হোসেন জানান,মঙ্গলবার দুপুরে বখাটে নুরুল ইসলাম,জহিরুল ইসলাম ও মতিন আবারও উত্ত্যক্ত করলে ছাত্রীর মা প্রতিবাদ করে। এতে বখাটে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ছাত্রী ও তার মাকে বাড়িতে গিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করতে থাকে। মারধরে ছাত্রী ও তার মা জ্ঞান হারিয়ে ফেললে। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধারর করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তারা চরফ্যাশন হাসপাতালে ডাক্তার মাহাবুব কবীরের চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
ছাত্রীর মা সুমি বলেন, আমার মেয়েকে নুরুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম ও মতিন, দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছে। তাদের ভয়ে সে ঠিকমত মাদ্রাসায় যেতে পারছিলো না। এ ঘটনার পর আইনের আশ্রয় নিবেন বলেও জানান তিনি।
শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে কেউ থানায় কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।