অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শুক্রবার, ৫ই মার্চ ২০২১ | ২০শে ফাল্গুন ১৪২৭


ভোলার আদালতে যুগান্তকারী রায় শর্তে সাপেক্ষে সাজাপ্রাপ্ত আসামি থাকবে বাড়িতে


ইসতিয়াক আহমেদ

প্রকাশিত: ৪ঠা জানুয়ারী ২০২১ রাত ১১:৩৭

remove_red_eye

২৩০

এ পর্যন্ত ১৫ শিশু প্রবেশন পেয়েছে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছে ৪ শিশু
ইসতিয়াক আহমেদ : বাল্য বিবাহ পড়ানোর সময় হাতেনাতে আটকের পর বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে সাজাপ্রাপ্ত মামলায় মোঃ রুহুল আমিন নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে সংশোধনমূলক সাজা দিয়েছেন ভোলার জেলা ও দায়রা জজ আদালত। আদালতের জেলা ও দায়রা জজ এ.বি.এম. মাহমুদুল হক আসামিকে কিছু সামাজিক উন্নয়নমূলক  দায়িত্ব পালনের শর্ত দিয়ে নিজ বাড়িতে প্রবেশনে থেকে সংশোধনের সুযোগ করে দিয়েছেন। মো: রুহুল আমিন গত ১৮ নভেম্বর থেকে চলতি বচরের ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত প্রবেশনে থাকবেন। আদালত সুত্র জানায় গত ১৭ নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ৬টি মামলায় ১৫ জন শিশুসহ মোট ১৭ জন আসামীকে প্রবেশন দিয়ে সংশোধনের সুযোগ করে কিনয়েছেন। ১৭ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখে প্রথমবারের মতো ভোলার আদালতে যুগান্তকারী এ রায় ঘোষণা করা হয়।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনের ৯ ধারার লঙ্ঘনের অভিযোগে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আসামী মোঃ রুহুল আমিনকে গত বছরের ২ নভেম্বর দোষী সাব্যস্ত করে ৭ মাসের কারাদÐ প্রদান করেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রুহুল আমিন। উক্ত আদেশের বিরুদ্ধে আসামী আপীল করলে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট উক্ত আপীল নামঞ্জুর করে আসামীর সাজা কমিয়ে ২ মাস কারাদÐ প্রদান করেন। ওই আদেশের অসম্মতিতে ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আসামীর পক্ষে তার আইনজীবী ফৌজদার রিভিশন-৪১/২০২০ মামলা দায়ের করেন।
পরে মামলার নথি পর্যালোচনা করে ও রিভিশন দরখাস্তের বিষয় উভয় পক্ষের বিজ্ঞ আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে ফৌজদারী রিভিশন-৪১/২০২০ নং মামলাটি দোতরফাসূত্রে নামঞ্জুর করে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ভোলা কর্তৃক প্রদত্ত মোবাইল আপীল মামলা নং ২৬/২০ এর গত ২/১১/২০২০ ইং তারিখের আদেশ পরিবর্তিত আকারে এতদ্বারা বহাল ও বলবৎ রেখে আসামি মোঃ রুহুল আমিনকে প্রদত্ত সাজা কমিয়ে ২ মাস করার আদেশ রদ করেন ভোলা জেলা ও দায়রা জজ এ.বি.এম. মাহমুদুল হক। এছাড়াও রায়ের আদেশে আরও বলা হয় যেহেতু আসামী প্রথমবারের মত এমন অপরাধ করেছেন এবং তিনি একজন মাওলানা এবং মাদ্রাসার শিক্ষক এমতাবস্থায় আসামী  প্রদত্ত সাজা ভোগের পরিবর্তে কারাদÐের বাকি সময়ের জন্য কিছু সামাজিক কার্যক্রমের শর্তে প্রবেশনে থাকবেন। শর্তগুলো হলো- আসামী প্রবেশনে থাকাকালীন ঠিকানা পরিবর্তন করতে পারবে না, কোনো অপরাধে জড়াতে পারবে না এবং প্রবেশনকালীন সময় কমপক্ষে ১৪ দিন বাল্যবিবাহ নিরোধ সংক্রান্ত সভার আয়োজন করে বাল্যবিবাহের কুফল স¤পর্কে মানুষকে সচেতন করবেন। শর্তগুলো ভঙ্গ করলে তাকে আবারও কারাগারে যেতে হবে বলে আদেশ দেন আদালত।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি শর্তগুলো মানছে কিনা তা তদারকি করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ভোলা প্রবেশন অফিসার মিহির কুমার পাইককে। প্রবেশন অফিসারকে আসামির আচরণ স¤পর্কে আদালতে রিপোর্ট জমা দেওয়ার আদেশও দেওয়া হয়েছে এই রায়ে।
প্রবেশনে থাকা আসামী মোঃ রুহুল আমিন আদালতের বেঁধে দেয়া শর্তগুলো যথাযথভাবে পালন করছেন বলে ইতোমধ্যে আদালতের কাছে একটি রিপোর্ট প্রদান করেছেন প্রবেশন অফিসার মিহির কুমার পাইক। রিপোর্টের মাধ্যমে তিনি জানান, প্রবেশনার রুহুল আমিন ১৮/১১/২০২০ ইং তারিখ হতে আমার তত্ত¡াবধানে আছেন। আগামী ১৮/১১/২০২১ ইং তারিখ পর্যন্ত তার কর্মকান্ড মনিটরিং করা হবে। প্রবেশন মেয়াদ শেষে বিজ্ঞ আদালতকে অবহিত করা হবে। প্রবেশনকালীন সময়ে ২৩/১২/২০২০ তারিখে তিনি প্রথম মাসিক সাক্ষাৎ প্রদান করেছেন। প্রবেশনের শর্তাবলী উত্তম রূপে পালন করছেন। তিনি প্রবেশনের শর্ত অনুযায়ী বাল্যবিবাহ নিরোধ সংক্রান্ত প্রথম সভার আয়োজন করেছেন ও তার ছবি এবং সভার রেজুলেশন জমা দিয়েছেন। তিনি আইনশৃঙ্খলা বিঘœকারি কর্মকান্ড ও অপরাধ থেকে বিরত আছেন। এখন পর্যন্ত তার আচরন সন্তোষজনক।

এদিকে এ রায়ের ভ‚য়সী প্রশংসা করে ভোলা জেলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের আইনজীবীরা বলেন, ভোলার আদালতের এটি একটি উল্লেখযোগ্য ও ব্যতিক্রমধর্মী রায়। এই রায়ের মধ্য দিয়ে আসামি স্বাভাবিক জীবনযাপন করে সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমে নিজেকে সংশোধনের বিরাট একটা সুযোগ পাচ্ছেন।
আদালত সুত্র জানায়, গত বছরের ১৭ নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত এ পর্যন্ত ৬টি মামলায় ১৫ জন শিশুসহ মোট ১৭ জন আসামীকে প্রবেশন দিয়ে সংশোধনের সুযোগ করে কিনয়েছেন। প্রবেশন কর্মকর্তা মিহির কুমার পাইক জানান, সাধারণত প্রবেশনকালে আসামী নিজ বাড়িতে থাকবেন। নিয়মিত তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয় এবং  সংশোধনমূলক পরামর্শ দেয়া হয়। এ পর্যন্ত ৪ জন শিশু যথাযথভাবে তাদের প্রবেশন সময় অত্রিকম করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন বলেও তিনি বাংলার কণ্ঠকে জানিয়েছেন।





ভোলায় বিলুপ্তপ্রায় দেশীয় মাছের জাতকে  ধরে রাখতে অবহিতকরন কর্মশালা

ভোলায় বিলুপ্তপ্রায় দেশীয় মাছের জাতকে ধরে রাখতে অবহিতকরন কর্মশালা

চরফ্যাশনের চরমাদ্রাজ ইউপির  চেয়ারম্যান প্রার্থী ডাঃ আব্দুল মান্নানের শোডাউন

চরফ্যাশনের চরমাদ্রাজ ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী ডাঃ আব্দুল মান্নানের শোডাউন

জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উপলক্ষে বাংলা বাজারে  সিপিপি সেচ্ছাসেবকদের র‌্যালী

জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উপলক্ষে বাংলা বাজারে সিপিপি সেচ্ছাসেবকদের র‌্যালী

ভোলার রাজাপুরে তৃতীয়  শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

ভোলার রাজাপুরে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের লক্ষ্যে ভোলায় প্রস্তুতি সভা

বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের লক্ষ্যে ভোলায় প্রস্তুতি সভা

ভোলা পৌরসভার নব নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের পক্ষ থেকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা

ভোলা পৌরসভার নব নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের পক্ষ থেকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা

ভোলায় গ্রাম আদালত বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সভা

ভোলায় গ্রাম আদালত বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সভা

ভোলায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরণ

ভোলায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরণ

চরফ্যাসনে সাংবাদিকদের  কলম বিরতি

চরফ্যাসনে সাংবাদিকদের কলম বিরতি

জনগণের খেদমতে নিজেকে উৎসর্গের  ঘোষণা দিলেন  ভোলা পৌর মেয়র মনিরুজ্জামান

জনগণের খেদমতে নিজেকে উৎসর্গের ঘোষণা দিলেন ভোলা পৌর মেয়র মনিরুজ্জামান

আরও...