অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৯শে জানুয়ারী ২০২১ | ৫ই মাঘ ১৪২৭


ভোলায় গ্রামের মানুষের জন্য করোনায় ভালো থাকার গল্প


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৫শে নভেম্বর ২০২০ রাত ০৯:৫৭

remove_red_eye

৮২

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক :  ভোলার শহরগুলোর মানুষ মহামারি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হলেও সচেতন নয় গ্রামের মানুষ। আর গ্রামাঞ্চেলর মানুষেক কেরানা ভাইরাস স¤েপর্ক সচেতন ও করোনা প্রতিরাধে করনীয়তা নিয়ে পথ নাটক ভালো থাকার গল্প পরিবশন করেছন একদল তরুন-তরুনী।
বুধবার (২৫ নেভম্বর) বিকল ভোলার সদর উপেজলার আলী নগর ও চর সেমাইয়া ইউনিয়েনর বিভন্ন গ্রামের সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখ এ নাটক পিরবশন করেছন সামাজিক সংগঠন ইয়ুথ পাওয়ার ইন বাংলাদেশ।এসময় তারা নাটেকর মাধ্যমে বর্তমান ইস্যু করোনা ভাইরাস সর্ম্পকে সচেতন ও করোনা প্রতিরাধে মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা, সাবান ও হ্যান্ড স্যানেটাইজার দিয়ে ভালো করে হাত ধোয়ার মাধ্যমে ভালো থাকার বিষেয় তুলে ধরেন।ভোলার সদর উপেজলার আলী নগর ইউনিয়েনর ২ নং ওয়ার্ডের সাচিয়া গ্রামের আনিকা ও জয়নব বেগম জানান, আমরা করোনা সর্ম্পকে শুনেছি । তবে   করোনা প্রতিরাধে এসব নিয়ম সর্ম্পকে কেউ আমাদের এভাবে বলেনি। আজ আমরা করোনাকালীন সময় করনীয়তা ভালোভাবে জানেত পেরেছি নাটেকর মাধ্যমে।
চর ছিপিল গ্রামের মোঃ মিনর হোসেন ও হারুন মিয়াসহ একাধিকরা জানান, নাটেকর মাধ্যমে আমরা বুঝতে পেরেছি সচেতন ও সঠিক নিয়ম মানেল করোনাকে প্রতিরোধ করা সম্বব। আজ থেকে আমরা এই গ্রামের নারী পুরুষরা করোনা প্রতিরাধে সকল নিয়াম মেনে চলবো।ইয়ুথ পাওয়ার বাংলাদেশের প্রধান সমন্বয়কারী আদিল হোসেন তপু জানান,আমরা শহেরর পাশাপাশি গ্রামাঞ্চেলের নারী ও পুরুষদের করোনা থেকে বাঁচার জন্য করনীয়তা নিয়ে নাটক পরিবেশন ও সচেতন করে যাচ্ছি। এতে গ্রামের মানুষ করোনাকালীন সময় করনীয় সর্ম্পকে অনেক সেচতন হচ্ছে। তিনি আরো জানান, পর্যায়ক্রমে আমাদের পথ নাটক ভোলার সাত উপজেলায় করা হেব। উল্লেখ্য, নাটকটি বায়স্তয়ন করেছে সেইন্ট বাংলাদেশ ও সহায়তা করেছে প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ।