অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল ২০২৪ | ৯ই বৈশাখ ১৪৩১


সম্মাননা পাচ্ছেন ৮ অভিনেত্রী


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪ঠা মার্চ ২০২৪ বিকাল ০৫:০৭

remove_red_eye

৪৭

অভিনেতা সায়েম সামাদের হাত ধরে ২০২০ সালে ‘কাঁচখেলা রেপার্টরি থিয়েটার’-এর যাত্রা শুরু হয়। ২০২২ সাল থেকে সায়েম সামাদের উদ্যোগেই আন্তর্জাতিক নারী দিবসে মূলত থিয়েটারের সঙ্গে সম্পৃক্ত অভিনেত্রীদের সম্মাননা দিয়ে আসছেন। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও সায়েম সামাদের উদ্যোগে বিভিন্ন নাট্যদলের অভিনয়শিল্পীকে সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।

মঞ্চের দাপুটে অভিনেত্রী, যিনি ‘লাল জমিন’ নাটক করে সারা দেশে ভীষণ সাড়া ফেলেছেন সেই নন্দিত অভিনেত্রী মোমেনা চৌধুরী, নাটক ও সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজী সেলিম, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ও নির্দেশক নাজনীন হাসান চুমকি এবং গুণী অভিনেত্রী তনিমা হামিদ কাঁচখেলা নাট্য সম্মাননায় ভূষিত হতে যাচ্ছেন। আরও চারজন অভিনয়শিল্পী একই সম্মাননায় ভূষিত হতে যাচ্ছেন। তারা হলেন জুয়েনা শবনম, শামসি আরা সায়েকা, হাসিনা সাফিনা বানু উর্মি ও সৈয়দা নওশীন ইসলাম দিশা।

কাঁচখেলা রেপার্টরি থিয়েটারের প্রধান নির্বাহী সায়েম সামাদ বলেন, ‘সকল ক্ষেত্রে নারীর অবদান অনস্বীকার্য। বাংলাদেশের মঞ্চনাটকে নারীর মেধা ও শ্রমের মূল্যায়ন যথাযথভাবে হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি। পুরুষ সহকর্মীর তুলনায় নারীকে থিয়েটারে সম্পৃক্ত হতে সাধনা চালিয়ে যেতে অনেক বেশি পরিশ্রম ও প্রতিবন্ধকতার সঙ্গে লড়তে হয়। নারীর মঞ্চ সাধনাকে মূল্যায়িত করতে প্রতিবছর বিগত তিন বছর যাবত এই আয়োজন করছি। সবার সহযোগিতা পেলে ভবিষ্যতে আরও ভালো কিছু উপহার দেওয়ার ইচ্ছে আছে। আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা জানাই প্রত্যেক নারী শিল্পীকে যারা এই সম্মাননা গ্রহণ করার জন্য সম্মতি দিয়েছেন। কারণ তাদের কারণেই আলোকিত হবে এই অনুষ্ঠান।’

জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজী সেলিম সম্মাননা নিয়ে নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে বলেন, ‘প্রতিবছর মঞ্চনাটকের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর মেধার মূল্যায়নে কাঁচখেলা রেপার্টরি থিয়েটার এই সম্মাননা প্রদান করছে। আমি মনে করি, নারীর মেধার মূল্যায়নের মাধ্যমে মঞ্চনাটক নারীর অংশগ্রহণে আরও সমৃদ্ধ হবে।’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ও নির্দেশক নাজনীন হাসান চুমকি বলেন, প্রতিবছর মঞ্চনাটকে নারীর অবদানকে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে কাঁচখেলা রেপার্টরি থিয়েটার অনন্য সামাজিক ভূমিকা রেখেছে। এ সম্মাননা প্রদানের মাধ্যমে মঞ্চনাটক নারীর অংশগ্রহণে আরও সমৃদ্ধ হবে। আগামী ৮ মার্চ সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর মহিলা সমিতি মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী নারী শিল্পীদের হাতে সম্মাননা প্রদান করবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি তারানা হালিম এমপিসহ বেশ কয়েকজন।

আগামী ৮ থেকে ১০ মার্চ পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী নাট্য উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করবেন একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ডলি জহুর। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় মহিলা সমিতি মিলনায়তনে থাকছে মঞ্চনাটকের প্রদর্শনী।

আগামী ৮ মার্চ মঞ্চস্থ হবে থিয়েটার ফ্যাক্টরির নাটক ‘আষাঢ়স্য প্রথম দিবসে’, ৯ মার্চ প্রাচ্যনাটের ‘আগুনযাত্রা’ এবং ১০ মার্চ অনুস্বরের ‘হার্মাসিস ক্লিওপেট্রা’।

 

সুত্র জাগো