ভোলা, সোমবার, ৩০শে মার্চ ২০২০ | ১৬ই চৈত্র ১৪২৬

অচিন্ত্য মজুমদার


২৫শে মার্চ ২০২০ রাত ১২:১৬




করোনা প্রতিরোধে ভোলায় ঔষধ মুদি ও কাঁচামাল ছাড়া সব দোকান বন্ধ

ভোলা জেলা

অচিন্ত্য মজুমদার:: করণা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ভোলায় ঔষধ মুদি ও কাঁচামালের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা  প্রশাসন এ নির্দেশনা জারি করেন। এরপর থেকে জেলা ও উপজেলা  প্রশাসনের বরাত দিয়ে সকল উপজেলার বাজার গুলোতে মাইকে এ নির্দেশনা প্রচার করা হয়। এতে বলা হয়, পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ঔষধ এবং নিত্য পণ্যের দোকান ব্যতীত সব দোকান বন্ধ থাকবে। এ নির্দেশনা কার্যকর করাতে জেলা ও উপজেলা  প্রশাসনের পাশাপাশি কাজ করছে পুলিশ প্রশাসন। বিকালে থেকে  শহরের গুরুত্বপূর্ন এলাকায় রাস্তায় নেমে সর্তক করে।  ফলে নির্দেশনা জারির পর থেকে ভোলা শহরের দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছে ব্যবসায়ীরা। সন্ধ্যার পর শুধু ঔষধ,মুদি ও কাঁচামালের দোকান খোলা ছিলো। শহরের রাস্তাঘাট জনশূন্য হয়ে যায়। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ আলম ছিদ্দিক জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একান্ত  প্রয়োজন ছাড়া জনসাধারণকে ঘরের বাইরে বের না হওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।


মনপুরা  প্রতিনিধি  জানান, ভোলার মনপুরায় করোনা ভাইরাস সংক্রামণরোধে ফার্মেসী, মুদি দোকান ও কাঁচা বাজারের দোকান ব্যতিত অনির্দিষ্টকালের জন্য দোকান-পাট বন্ধ রাখতে নির্দেশ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় উপজেলা পরিষদের এক জরুরী সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা যায়, গ্রাম অঞ্চলের মানুষ হাট-বাজারের বসে আড্ডা দেয়। জনসমাগম পুরোপুরি নিয়ন্ত্রন করার জন্য অনির্দিষ্টকালের জন্য দোকান-পাট বন্ধ রাখার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে মাইকিং করে এই নির্দেশনা মেনে চলার জন্য জনগণ ও ব্যবসায়ীদের সর্তক করা হয়। এছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাদুড় মুক্ত করন, বিদেশ ফেরতদের তালিকা তৈরী ও বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারন্টাইন নিশ্চিত করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।


উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাস জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রামণ রোধে মনপুরার সকল বাজারের দোকান-পাট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে মুদি দোকান, ফার্মেসী ও কাঁচা বাজার স্বল্প পরিসরে খোলা থাকবে। উল্লেখ্য, মনপুরার ৪ টি ইউনিয়নের অনেকে লোক বিদেশ কর্মরত আছেন। এদের মধ্যে অনেকে করোনা আতংকে দেশে ফিরছেন। এই পর্যন্ত ভারত থেকে ১৫ জন, ওমান থেকে ৫ জন, সৌদিআরব থেকে ১ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ৩ জন, মালেশিয়া থেকে ১ জন ও সিঙ্গাপুর থেকে ১ জন সহ মোট ২৬ জন বিদেশ ফেরত রয়েছে। প্রতিনিয়িত এই তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন বিদেশ ফেরত ও স্থানীয়দের মধ্যে করোনার উপসর্গ বা লক্ষণ পাওয়া যায়নি।

লালমোহন প্রতিনিধি জানান,করোনা ভাইরাসের কারণে ভোলার লালমোহন উপজেলার সকল দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ উপলক্ষে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে লালমোহন বাজারসহ উপজেলার সকল বাজার বন্ধ কার্যকর হবে। তবে ঔষধের দোকান, কাঁচা বাজার ও মুদি দোকান খোলা থাকবে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাবিবুল হাসান রুমি জানান।

এদিকে মঙ্গলবার থেকে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে সকল হোটেল রেস্তরা বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে বিভিন্ন হাট-বাজারের সাপ্তাহিক হাট। মঙ্গলবার লালমোহন থেকে কোন যাত্রীবাহি লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবীর জানান, লালমোহন উপজেলায় ২ শত প্রবাসী বিভিন্ন দেশ থেকে গত কয়েকদিনে এসে অবস্থান করছে। তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  থানা পুলিশ ও ইউপি চৌকিদার এদের নজরদারী করছে। গত শুক্রবার রাতে গজারিয়া এলাকা থেকে ছগির আহমেদ নামে এক প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এদিকে লালমোহন হাসপাতালের করোনা রোগ সনাক্ত ও ডাক্তার নার্সদের নিরাপদে রাখার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদী এখনো পৌছেনি বলে জানিয়েছেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মহসিন খান। এর কারণে জর সর্দি কাশি হলে রোগীদের হাসপাতালে না এসে নিজ নিজ ঘরে থেকে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। তজুমদ্দিন থেকে রফিক সাদি জানান,তজুমদ্দিন উপজেলায় করোনার জন্য সর্তকতামূলক ভাবে বিকালে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঔষধ ও মুদি ছাড়া সকল দোকান পাট বন্ধ রাখার জন্য মাইকিং করা হয়। সন্ধ্যূার পর উপজেলার দোকান পাট গুলো বন্ধ হয়ে যায়।   চরফ্যাশন প্রতিনিধি জানান, সাড়াদেশের ন্যায় ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায়  করোনা ভাইরাস (কোভিড - ১৯)  প্রতিরোধে  প্রশাসনের সর্বোচ্ছ  সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণে মাঠে নেমেছে উপজেলাসহ থানা প্রশাসন। জন সসাধারণকে সচেতন করার জন্যে উপজেলার পৌরসভা সহ ২১ ইউনিয়নে লিফলেট বিতরন ও মাইকিং করে জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি হাটবাজার এবং সন্ধ্যায় সকল সকল দোকানপাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন (২৪মার্চ) মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিদর্শণ করে সকল দোকান বন্ধ ও জনসমাগম নিষিদ্ধ করে দেন। এছাড়াও চরফ্যাশন সদর থানাসহ,দুলারহাট,শশিভূষণ এবং দক্ষীন আইচা থানার অফিসার ইনচার্জগন সড়কে নেমে জনসমাগম এলাকায় অভিযান চালিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধসহ জন সচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করেন।   উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, করোনা ভাইরাস  বিষয়ে  চরফ্যাশন শশীভূষন,দুলার হাট ও দক্ষিন আইচা থানায় পৃথক,পৃথক কমিটি করে করোনা প্রতিরোধে সবাইকে    সচেতন করার কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।  চরফ্যাশন উপজেলায় জরুরি সভায় ঔষধের ফার্মেসি নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান ও সেবা মুলক প্রতিষ্ঠান  ছাড়া সকল দোকান সমুহ সন্ধ্যার পর  বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবং এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে  প্রশাসন কন্ট্রোল রুম  খুলেছে। উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শোভন কুমার বসাক জানান, চরফ্যাশনের অবস্থা এখনো ভালো রয়েছে। তবে ঠান্ডা জ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। 
দৌলতখান প্রতিনিধি জানান, দৌলতখান উপজেলার পৌর এলাকাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের বাজারে ঔষধ ও মুদি কাঁচাবাজার ছাড়া সকল দোকান করোনা ভাইরার ঠেকাতে বন্ধ রাখার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়। সন্ধ্যার পর দোকান পাট বন্ধ হয়ে যায়। বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি জানান,বোরহানউদ্দিন উপজেলাতেও একই অবস্থা বিরাজ করছে। ভোলার বোরহানউদ্দিনে অর্নিদিষ্টকালের জন্য সাপ্তাহিক হাট-বাজার বন্ধ ঘোষণার একদিন পর এবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সকাল পর্যন্ত হোটেল,রেস্তোরা,চায়ের দোকান বন্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। সোমবার রাতে  উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) মো. বশির গাজী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, হোটেল, রেস্তোরা ও চায়ের দোকানে সন্ধ্যার পর প্রচুর লোক সমাগম হয়। ওইখানে বিভিন্ন শ্রেণির লোক আড্ডা দেয়। এতে সম্ভাব্য করোনা আক্রান্ত রোগী থেকে ভাইরাস বিস্তারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।  করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সারারাত হোটেল, রেস্তরা ও চায়ের দোকান বন্ধ থাকবে। তবে দিনের বেলা যদি কেউ নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে খেতে চায় অথবা  পার্সেল খাবার কিনতে চায় তাহলে হোটেল ও রেস্তোরা খাবার সরবরাহ করতে পারবে।




দৌলতখানে খেটে খাওয়া মানুষের বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে হাজির ইউএনও

দৌলতখানে খেটে খাওয়া মানুষের বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে হাজির ইউএনও

মনপুরায় বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন ইউএনও

মনপুরায় বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন ইউএনও

চরফ্যাশনে তিন জুয়ারির জরিমানা

চরফ্যাশনে তিন জুয়ারির জরিমানা

ভোলায় চায়ের দোকানগুলোতে আড্ডায় ব্যস্ত তরুণরা, করোনা নিয়ে হাস্যকর মন্তব্য

ভোলায় চায়ের দোকানগুলোতে আড্ডায় ব্যস্ত তরুণরা, করোনা নিয়ে হাস্যকর মন্তব্য

ভোলায় করোনা সংক্রমন রোধে সামাজিক সচেতনতায় কাজ করছে ছাত্রলীগ

ভোলায় করোনা সংক্রমন রোধে সামাজিক সচেতনতায় কাজ করছে ছাত্রলীগ

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা না মানলে আমাদের অবস্থাও ইতালির মতো হবে: এমপি শাওন

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা না মানলে আমাদের অবস্থাও ইতালির মতো হবে: এমপি শাওন

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভোলার ইসমাঈল বেকারিতে নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে খাবার

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভোলার ইসমাঈল বেকারিতে নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে খাবার

ভোলায় ২০ বছর ধরে শেকলে বন্দী জীবন , শেকলই 'শত্রু'

ভোলায় ২০ বছর ধরে শেকলে বন্দী জীবন , শেকলই 'শত্রু'

ভোলায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তা মানুষের ঢল

ভোলায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাস্তা মানুষের ঢল

ভোলায়  শ্রমজীবী পরিবারের ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন জেলা প্রশাসক

ভোলায় শ্রমজীবী পরিবারের ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন জেলা প্রশাসক

আরও...