অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২২শে মে ২০২২ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯


তজুমদ্দিনে তৃতীয় পর্যায় ঘর পাচ্ছেন ১৮৪টি গৃহ ও ভূমিহীন পরিবার


তজুমদ্দিন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৫শে এপ্রিল ২০২২ রাত ১১:৩৫

remove_red_eye

২৩


তজুমদ্দিন প্রতিনিধি : মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে তৃতীয় পর্যায়ে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে
প্রেস ব্রিফিং করেন তজুমদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মরিয়ম বেগম। সোমবার বিকাল ৪ ঘটিকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং লিখিত বক্তব্য তিনি জানান, তজুমদ্দিন উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। গৃহ নির্মাণ উপযোগি খাস জমি চিহ্নিতকরণ, প্রকৃত উপকারভোগী নির্বাচন, সঠিক মান ও ডিজাইন অনুসরণপূর্বক
নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে গৃহ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে ২ শতাংশ জমি বন্দোবস্ত, কবুলিয়ত ও রেজিস্ট্রেশন এবং জমিসহ সেমিপাকা গৃহ হস্তান্তরের মাধ্যমে একটি গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারের সুন্দর জীবনের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। যেখানে খাস জমি পাওয়া যায়নি সেখানে সরকারি ভাবে জমি ক্রয় ও বেসরকারিভাবে জমি দানের মাধ্যমে জমি সংস্থান করে উপকারভোগীদের মধ্যে জমি বন্দোবস্ত ও গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের
আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে ১৮ টি এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ১৫০টি গৃহ প্রদান করা হয়েছে। তৃতীয় পর্যায়ে উপজেলার দেওয়ানপুর, কেয়ামূল্যাহ,আড়ালিয়া, গুরিন্দা বাজার ও চাঁচড়া ইউনিয়নে ১৮৪ টি ঘরের নির্মাণ কাজ চলমান
রয়েছে। এর মধ্যে ৪৯টি ঘরের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রেস ব্রিফিং এ বরো জানান, (২৬ এপ্রিল ২০২২) মঙ্গলবার সকাল ১১ ঘটিকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের
মাধ্যমে উপকারভোগী পরিবারের মাঝে গৃহ হস্তান্তর অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করবেন। এসময় সারাদেশের ন্যায় ‘ক’ শ্রেণির ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে পবিত্র ঈদের উপহার হিসেবে এ উপজেলার ৪৯ টি পরিবারের নিকট গৃহ হস্তান্তর একই সাথে জমির কবুলিয়ত দলিল, সার্টিফিকেট ও খতিয়ানসহ গৃহের চাবি হস্তান্তর করা হবে।