অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারী ২০২২ | ৫ই মাঘ ১৪২৮


ভেদুরিয়াতে দুই চেয়াম্যান প্রার্থীর সমথর্কদের মধ্যে সংঘর্ষ ভাংচুর


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৪ঠা জানুয়ারী ২০২২ রাত ১২:১২

remove_red_eye

৮১

এলাকায় উত্তেজনা  আহত ২৫

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক \ ভোলা সদর উপজেলার  ভেদুরিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) চেয়াম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ,ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয়  গ্রæপের অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে।  সোমবার দুপুর ১২ টায় ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ব্যাংকের হাট কলেজ ও হেতনার হাট এলাকায় এ সহিংসতার ঘটনা ঘটে। বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
স্থানীয় সূত্র জানান, ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থীত চেয়ারম্যান  প্রার্থী আবদুল হাই ও বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী  মোস্তফা কামালের সমর্থকদের মধ্যে এলাকায় নির্বাচনী প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে ব্যাংকের হাট কলেজে সংর্ঘষ হয়। এ সময়  দুই পক্ষ ইটপাটকেল নিক্ষেপ, লগি বৈঠা, দাড়ালো অস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে মহড়াসহ ধাওয়া পাল্টা দেয়। এছাড়া হেতনার হাট এলাকায় একটি ঘর ও একটি দোকান ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তফা কামাল পক্ষ দাবী করেন, তাদের সমর্থকরা ইউনিয়নের হেতনারহাট এলাকায় নির্বাচনী প্রচারনায় নামেন। এ সময় ওই স্থানে থাকা নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। অপর দিকে নৌকা প্রার্থী আবদুল হাই পক্ষ অভিযোগ করেন, তাদের নির্বাচনী প্রচারনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা হামলা চালায়। এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রবিবারও এ দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল। এদিকে আহতদের মধ্যে গুরুতরদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ সরদার জানান,ভেদুরিয়া এলাকায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা কেন্দ্র করে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। তবে কেউ আটক হয়নি। ৫ম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারী  ভোলা সদরের ১২টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
এদিকে ভেদুরিয়াতে সংর্ঘষের ঘটনায় আহত নৌকার সমর্থক রিফাত বাদী হয়ে ২৩ জনকে আসামী করে ভোলা থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলে জানান, ভোলা থানার ওসি এনায়েত হোসেন।