অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারী ২০২২ | ৫ই মাঘ ১৪২৮


এলাকার উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহবান


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৩১শে ডিসেম্বর ২০২১ রাত ০২:৪২

remove_red_eye

৩৫



ভোলার রাজাপুর ও  পূর্ব ইলিশায় আ’লীগ প্রার্থীদের পথ সভা

আকতারুল ইসলাম আকাশ : পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন উপলক্ষে  ভোলার রাজাপুর ও পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নির্বাচনী পথ সভা থেকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ভোট দৌযার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ১নং রাজাপুর ইউনিয়নের জনতা বাজার ও  সন্ধ্যার পর ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নে বজলু  দোকান বাজার এলাকায় এ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।
বিকেল ৪টায় রাজাপুর ইউনিয়নের ওবায়দুল হক মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে পথসভায় রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি নজু জমাদার ও ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সাইদের সভাপতিত্বে  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভোলা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার সফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব,, জেলা আওয়ামী লীগ ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম।  সঞ্চালণায় ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম।
এসময় জেলা ও উপজেলা নেতাকর্মীরা বলেন, ১নং রাজাপুর ইউনিয়নকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ৫ জানুয়ারি নৌকা প্রতীকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করতে হবে। পথ সভার প্রধান অতিথি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জননেতা তোফায়েল আহমেদের কথা অমান্য করে যাঁরা বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নিজেদেরকে ঘোষণা দিয়ে নৌকার বিপক্ষে গিয়ে নির্বাচন করছেন। তাঁরা তা ঠিক করছেন না। দলীয় প্রতীকের বিপক্ষে গিয়ে নির্বাচন করা এটা দলের জন্য অবমাননাকর। তাছাড়া মিঠু চৌধুরী গত নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। যাঁর কারনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে এবার নৌকার মনোনয়ন দেননি। তাই নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ভোটর দিয়ে এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানানো হয়। এসময় আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে এলাকার নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধসহ রাস্তাঘাট,পুল কালভাটসহ রাজাপুর ইউনিয়নের উন্নয়ন মূলক কাজের চিত্র তুলে ধরা হয়। অন্যদিকে সন্ধ্যায় ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের বজুলর দোকান সংলগ্ন এলাকায় এক পথসভায় নেতাকর্মীরা বলেন, দ্বীপ জেলা ভোলার অভিভাবক ভোলা-১ আসনের সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ ইলিশাকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করেছে। কোটি কোটি টাকার বøকের মাধ্যমে ইলিশা ইউনিয়ন আল্লাহর ইচ্ছায় টিকে রয়েছে। সেই ইউনিয়ন থেকে এবার নৌকা প্রতীকে বিপুল ভোটের মাধ্যমে জয়যুক্ত করে আবারও ইলিশা ইউনিয়নের অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করার সুযোগ করে দেওয়ার আহ্বান জানান তাঁরা। ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের উদ্দেশ্যে নেতাকর্মীরা বলেন, এখনো সময় আছে, যাঁরা নৌকার বিপক্ষে গিয়ে নির্বাচন করার আশাব্যক্ত করছেন, তাঁরা সকলে নেতার দিকনির্দেশনা মেনে নৌকার পক্ষে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান।বহিরাগতদের উদ্দেশ্যে বলেন, নৌকার সুনিশ্চিত বিজয় যাঁরা বহিরাগতদের দিয়ে বানচালের চেষ্টা করছে, তাদের দ্রæতই প্রতিহত করতে হবে। এদিকে পথ সভায় যোগ দিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মী ও সমর্থকরা ঢোল বাধ্য বাজিয়ে সমাবেশ স্থলে যোগ দেয়।
 উল্লেখ পঞ্চম ধাপে ভোলা সদর উপজেলার ১২ ইউপিতে আগামী ৫ জানুয়ারি ভোট অনুষ্ঠিত হবে।