অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারী ২০২২ | ৫ই মাঘ ১৪২৮


ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে রাতেও উড়ছে জাতীয় পতাকা


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০শে ডিসেম্বর ২০২১ রাত ১০:০২

remove_red_eye

৬৬


বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক  : দেশে পতাকা উত্তোলনের নিয়ম অনুযায়ী, সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা যাবে। সন্ধ্যার আগেই পতাকা নামিয়ে ফেলতে হবে। কিন্তু এর ব্যতিক্রম দেখা গেছে ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে। শনিবার রাতেও বিদ্যালয়টিতে গিয়ে জাতীয় পতাকা উড়তে দেখা গেছে। পরে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর এক কর্মচারী জাতীয় পতাকাটি নামিয়ে ফেলেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ দেলোয়ার হোসেন রাঢ়ি অবশ্য ভুল স্বীকার করলেও দোষ চাপিয়েছেন চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের উপর।

তবে স্থানীয়রা বলছেন, বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক অধিকাংশ সময়ই থাকেন তার গ্রামের বাড়ি বরিশাল জেলায়। তাই প্রায়ই এমন রাতভর জাতীয় পতাকা উড়তে দেখা যায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে। শুধুমাত্র প্রধান শিক্ষকের অবহেলায় রাতেও জাতীয় পতাকা না নামানোয় ক্ষোভ জানিয়েছেন তারা। তাদের দাবি জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার স্থানের ঠিক উল্টো পাশেই স্কুলের একটি কক্ষে বসবাস করার পাশাপাশি রাত্রিযাপন করেন প্রধান শিক্ষক। তিনি প্রতিষ্ঠানটিতে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে এমন ভুল সম্ভব হতো না। তাই জাতীয় পতাকার সম্মান অক্ষুণœ রাখতে কর্তৃপক্ষকে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার পাশাপাশি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিচারের দাবিও জানান তারা।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক মোঃ দেলোয়ার হোসেন রাঢ়ি বলেন, আমি তখন স্কুল থেকে একটু বাইরে ছিলাম। পিয়নদের ভুলবশত পতাকা নামাতে খেয়াল ছিল না। এমন অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন।