অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭ই আশ্বিন ১৪২৮


দৌলতখানে পাওনা টাকা চাওয়ায় ছেলের পিটুনিতে মা হাসপাতালে


দৌলতখান প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৩শে আগস্ট ২০২১ রাত ০৮:৫৮

remove_red_eye

৭৬


 দৌলতখান প্রতিনিধি : পাওনা টাকা চাওয়ায় ভোলার দৌলতখানে ফিরোজ (৩০) নামের এক ব্যক্তি তার আপন বৃদ্ধা মাকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় তাকে বাঁচাতে ছেলের বউ তহমিনা বেগম এগিয়ে আসলে তিনিও আহত হন। উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের দিদারউল্ল্যাহ গ্রামে রবিবার এ ঘটনা ঘটে। আহত জাহানারা বেগম (৮০) দৌলতখান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে সুলতান আহাম্মেদের স্ত্রী।

এব্যাপারে বৃদ্ধা জাহানারা বেগম বলেন, স্বামী সুলতান আহাম্মেদ সাত বছর আগে জমি বন্ধক রেখে ৫০ হাজার এবং ২০২০ সালে ৮ শতাংস জমি বিক্রি করে ২ লাখ টাকা ছোট ছেলে ফিরোজের কাছে জমা রাখেন। এসব টাকা চাইতে গেলে প্রায় সময়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে ফিরোজ। বন্ধক জমির টাকা ফেরত দিতে বলায় রবিবার ঘরে ভিতরে বৃদ্ধা জাহানারা বেগমকে মারধর করেন ছেলে ফিরোজ। খবর পেয়ে ছেলের স্ত্রী তহমিনা বেগম এগিয়ে আসলে তাকে মারধর করা হয় বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় আদালতে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন জাহানারা। তবে এসব ঘটনা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে অভিযুক্ত ফিরোজ জানান। তিনি বলেন, এমন ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি। উল্টো তারা আমাকে মারধর করেছে।