অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২০শে জুন ২০২১ | ৬ই আষাঢ় ১৪২৮


করোনা ঝুঁকিপূর্ণ ১৬৩ ইউপি ও ৯টি পৌরসভায় নির্বাচন স্থগিত


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ই জুন ২০২১ রাত ০৮:৫৫

remove_red_eye

৩৭

 

বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক : করোনা ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় আগামী ২১ জুন অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রথম ধাপের ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) মধ্যে ১৬৩টির নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়াও একইদিনে অনুষ্ঠিত ১১টি পৌরসভা নির্বাচনের মধ্যে ৯টি পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) যুগ্ম সচিব এসএম আসাদুজ্জামান আরজু সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (১০ জুন) নির্বাচন কমিশনের ৮২তম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জাতীয় সংসদের উপনির্বাচন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও পৌরসভা নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতির বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়া মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে আইইডিসিআর এর করোনা বিষয়ক পত্রের বিষয়ে পর্যালোচনা করা হয়। নির্বাচনের প্রস্তুতি ও আইইডিসিআর এর করোনা সংক্রান্ত পত্র পর্যালোচনার পর নির্বাচন কমিশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

ইসি সূত্র জানায়, আগামী ২১ জুন ৩৬৭টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের জন্য পূবনির্ধারিত ছিলো। কিন্তু ৩৬৭টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে করোনার উচ্চঝুঁকি সম্পন্ন এলাকা খুলনা বিভাগের সব ইউনিয়ন পরিষদ, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলার ইউনিয়ন পরিষদসহ মোট ১৬৩টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থগিত ঘোষণা করা ইউপিগুলোর মধ্যে রয়েছে বাগেরহাট জেলায় ৬৮টি, খুলনা জেলায় ৩৪টি, সাতক্ষীরা জেলায় ২১টি, নোয়াখালী জেলায় ১৩টি, চট্টগ্রাম জেলায় ১২টি এবং কক্সবাজার জেলায় ১৫টি ইউনিয়ন পরিষদ।

অন্যদিকে, আগামী ২১জুন ইসির পূর্বঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১১টি পৌরসভা নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও দিনাজপুর জেলা সেতাবগঞ্জ ও ঝালকাঠি জেলার ঝালকাঠি পৌরসভার নির্বাচন যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

অন্য ৯টি পৌরসভা করোনার উচ্চঝুঁকি সম্পন্ন এলাকায় হওয়াতে এসব পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা ও প্রচার-প্রচারণা করার জন্য নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিয়েছেন।