অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বৃহঃস্পতিবার, ২২শে এপ্রিল ২০২১ | ৮ই বৈশাখ ১৪২৮


তজুমদ্দিনে খাবারে নেশাদ্রব্য মিশিয়ে কুপিয়ে মালামাল লুট


তজুমদ্দিন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬ই মার্চ ২০২১ রাত ১২:১০

remove_red_eye

৮৭



তজুমদ্দিন প্রতিনিধি : ভোলার তজুমদ্দিনের শম্ভুপুরে রাতে খাবারের সাথে নেশা দ্রব্য মিশিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ মালামাল  লুট করা হয়েছে। এঘটনায় অচেতন ও আহত  ৫ জনকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার শম্ভুপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের গোলকপুর গ্রামের করিম ফরাজী বাড়ীতে এঘটনা ঘটে। ওই বাড়ীর আঃ শহিদের ঘরে কৌশলে রাতের খাবারের সাথে দুষ্কৃতিকারীরা নেশা জাতীয়দ্রব্য মিশিয়ে দেন।পরিবারের সদস্যরা খাবার খেয়ে অচেতন হয়ে পড়লে রাতে দুষ্কৃতিকারীরা ঘরে ঢুকে স্বর্ণালংকার, মোবালইল ও নগদ টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে। এ সময় আঃ শহিদের অন্তঃসত্তা স্ত্রী বিবি ছকিনা টের পেয়ে ডাক-চিৎকার দিলে ভাংগা কাঁচ দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে যখম ও পেটে লাথি মেরে গুরুতর আহত করা হয়।
পরে স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় গুরুতর আহত ছকিনা (৪০)  আছুরা (৬০), বেলাল (৩০) সজিব (১২) ও রোমানা (৮) সহ ৫ জনকে উদ্ধার করে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এস আই মনিরুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে হাসপাতালে  ভর্তি অসুস্থ্য দের খোঁজ খবর নিয়েছি। ঘটনার তদন্ত করে অপরাধীদের সনাক্ত করার চেস্টা চলছে।