অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শুক্রবার, ২রা অক্টোবর ২০২০ | ১৬ই আশ্বিন ১৪২৭


১৫ ও ২১ আগস্টের কুশীলবরা একই সূতোয় গাঁথা:এমপি মুকুল


বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২১শে আগস্ট ২০২০ রাত ১০:৩৯

remove_red_eye

২৬০


সরোয়ার শিমুল,বোরহানউদ্দিন : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ভোলা-২(বোরহানউদ্দিন-দৌলতখান)আসনের সংসদ সদস্য (এমপি)আলী আজম মুকুল বলেছেন, ১৫ ও ২১ আগস্টের কুশীলবরা একই সূতোয় গাঁথা। কুশীলবদের উদ্দেশ্য ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্ব-পরিবারে নিশ্চিহ্ন করা। তিনি শুক্রবার সকাল ১১ টায় বোরহানউদ্দিন পৌরসভা আয়োজিত ২১ শে আগস্টের আলোচনা সভা ও  দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।  তিনি আরো বলেন,  ১৫ আগস্টে ভাগ্যগুণে বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বেঁচে যায়। ওই চক্র পুনরায় ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূণ্য করতে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ২১ শে আগস্টে  গ্রেনেড হামলা করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দকে  মেরে ফেলতে চেয়েছিল। দুই হত্যাকান্ডই ইতিহাসের জঘন্য, নৃশংশ্যতম, বর্বোরোচিত হত্যাকান্ড হিসেবে স্বীকৃত। এর নেতৃত্বে ছিলেন, জিয়াপুত্র কুলাঙ্গার তারেক রহমান। আজ তাঁরা লন্ডনে থেকে অন-লাইনে গণতন্ত্রের কথা বলে। এ দেশের শান্তিকামী মানুষ তাঁকে কখনও ক্ষমা করবেনা। 
বোরহানউদ্দিন পৌরসভার মেয়র মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জসিমউদ্দিন হায়দার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদ, পৌরসভার সচিব প্রণয় কুমার সাহা, সহকারী প্রকৌশলী আ. সাত্তার প্রমুখ।
আলোচনা শেষে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন, পৌর শহর মসজিদের খতিব মা. মো. মিজানুর রহমান।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোক উপস্থিত ছিলেন।