অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বৃহঃস্পতিবার, ১লা অক্টোবর ২০২০ | ১৫ই আশ্বিন ১৪২৭


ভোলা-ঢাকা আসা যাওয়া করা যাবে মাত্র ৩ ঘন্টায়


হাসনাইন আহমেদ মুন্না

প্রকাশিত: ১৮ই জুলাই ২০২০ রাত ০৮:৩৪

remove_red_eye

১১৬



 
হাসনাইন আহমেদ মুন্না : ভোলার দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন উপজেলা থেকে মাত্র ৩ ঘন্টায় স্পিড বোটের মাধ্যমে ঢাকা আসা যাওয়া করা যাবে। ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য  আলী আজম মুকুলের প্রচেষ্টায় অত্যাধুনিক এমন দুটি স্পিড বোট দিয়েছে সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পরিবহন পুল। শুক্রবার বিকেলে বোট ২টি স্থানীয় নৌ ঘাটে আসলে শত শত মানুষ ভিড় করে দেখতে। এ সংসদীয় আসনের দুটি উপজেলার ৫ লাখের বেশি মানুষ এর সেবা পাবে। বোট দুটির মূল্য ৫০ লক্ষ টাকা করে ১ কোটি টাকা।
সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল বলেন, জরুরী রোগীদের চিকিৎসা সেবাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কর্মকান্ডে এই স্পিড বোট দুটি বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। এই বোট ইতোমধ্যে ঢাকা থেকে মাত্র ৩ ঘন্টায় ভোলা গিয়ে পৌঁছে। প্রত্যেকটি বোটে ১৫ জন করে যাত্রীর ধারণ ক্ষমতা রয়েছে। এর ফলে এই দুই উপজেলার প্রশাসনিক কাজসহ অনান্য কাজে বাড়তি গতি আসবে।
তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের এই স্থবির পরিবেশে’র মধ্যেও চেয়েছি এলাকার কাজগুলো এগিয়ে নেয়ার জন্য। প্রতিদিনই চাই নতুন কিছু যোগ হোক আমার নির্বাচনী এলাকায়। অত্যন্ত  দ্রæতগতির বোট দুটি প্রদানের জন্য ভোলা-২ আসনের জনগণের পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান তিনি।
দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিতেন্দ্র কুমার নাথ বলেন, সম্পুর্ণ ফাইবার গøাসের দ্বারা নির্মিত বোট দুটি ডাবল ইঞ্জিন বিশিষ্ট। যার গতি ঘন্টায় ৬০ কিলোমিটার। জরুরী, রোগী, যাত্রী পরিবহনের পাশাপাশি প্রশাসনের বিভিন্ন গরুত্বপূর্ণ কাজে এটি ব্যবহার করা যাবে। মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে চালক নিয়োগ পক্রিয়াধীন রয়েছে। খুব শিগ্রই বোট দুটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, দ্বীপ জেলা ভোলা সম্পূর্ণ নৌ পথের উপর নির্ভরশীল। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর এখান থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে লঞ্চ ছেড়ে যায়। যা পরদিন সকালে ঢাকায় গিয়ে পৌঁছে। এছাড়া সাম্প্রতি দিনের বেলায় চলার জন্য যাত্রীবাহী দুটি নৌযান চালু হয়েছে। যা ঢাকা যেতে ৫ ঘন্টা সময় লাগে। আর নতুন যোগ হওয়া বোট দুটি সবচে কম সময়ে ভোলা থেকে ঢাকায় যাবে। এতে করে আনন্দ প্রকার করেছে ঐ এলাকার বাসিন্দারা।