অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ৩রা ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৯শে অগ্রহায়ণ ১৪৩০


কাল আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০শে অক্টোবর ২০২৩ সন্ধ্যা ০৬:২১

remove_red_eye

৪০

জয়ের ধারায় ফেরার লক্ষ্য নিয়ে আগামীকাল কোলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে ওয়ানডে বিশ্বকাপে নিজেদের সপ্তম ম্যাচে আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ম্যাচটি শুরু হবে  বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে।
নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ উইকেটে জয়ের পর, বাজে পারফরমেন্সের কারনে হারের বৃত্তে বন্দি হয়ে পড়ে বাংলাদেশ দল । সর্বশেষ ম্যাচে ইডেন গার্ডেন্সে নেদারল্যান্ডসের কাছে হারসহ টানা পাঁচটিতে পরাজিত হয়েছে টাইগাররা।
বাজে পারফরমেন্সের কারনে বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে কঠোর সমালোচনায় মেতে উঠে ক্রিকেট বিশ^। টাইগারদের খেলা দেখতে কোলকাতায় আসা বাংলাদেশী সমর্থকরা  গ্যালারি থেকে অধিনায়ক সাকিবকে উদ্দেশ্য করে দুয়োধ্বনি দেয়। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সমালোচনা ঝড় তুলে ভক্তরা।
বিশ্বকাপের আগ মুর্হূতে তামিম ইকবাল এবং সাকিব আল হাসানের বিরোধের প্রভাব পড়ে বাংলাদেশ দলের উপর। নেদারল্যান্ডসের কাছে হারের পর এমনটাই আকার ইঙ্গিতে মেনে নেন অধিনায়ক সাকিব।
বিশ্বকাপের আগে তামিম ও সাকিবের বিরোধ এবং বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বাজে পারফরমেন্স সত্ত্বেও গত দুই মাস  অসম্ভবভাবে নীরব ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। অবশেষে কোলকাতায় বাংলাদেশ-নেদারল্যান্ডস ম্যাচে প্রকাশ্যে আসেন তিনি।
পাপন বলেন, এমন পারফরমেন্স অগ্রহণযোগ্য-হতাশাজনক এবং জনসাধারণের সমালোচনা খুবই স্বাভাবিক।   তারপরও জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের পাশে থাকবে বিসিবি। কারণ এখনও তিনটি ম্যাচ বাকি আছে টাইগারদের। ২০২৫ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার যোগ্যতা অর্জনের জন্য বিশ্বকাপে আরো  অন্তত দু’টি ম্যাচ জিততে হবে বাংলাদেশকে। আইসিসির নিয়ম অনুসারে, বিশ্বকাপের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ সাত দল এবং স্বাগতিক হিসেবে পাকিস্তান টুর্নামেন্টে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করবে।
নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে  এই মুহুর্তে বাংলাদেশের জন্য আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তানকে সহজ প্রতিপক্ষ হিসেবে বিবেচনা করা যায়। নেদারল্যান্ডস এবং শ্রীলংকার বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচ জয়ের পর পথ হারায় পাকিস্তান। বাংলাদেশের মত হারের বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছে পাকরাও। ভারত-অস্ট্রেলিয়া-আফগানিস্তান এবং দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে টানা চার ম্যাচ হেরেছে বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন  পাকিস্তান।
আফগানিস্তানের কাছে পরাজিত হয়ে বড় ধাক্কা খাওয়ার পর   দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিশ্চিত জয় হাতছাড়া হওয়ায় মনোবল অনেকটাই ভেঙ্গে গেছে পাকিস্তানের। 
তৃতীয়বারের মত বিশ^কাপের মঞ্চে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ১৯৯৯ সালে বিশ^কাপ অভিষেকে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম মোকাবেলায় ৬২ রানের জয়ে সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলো বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ে ২০০০ সালে টেস্ট মর্যাদা পাওয়া সহজ হয়েছিলো টাইগারদের। গত আসরে বাংলাদেশের সাথে দ্বিতীয় সাক্ষাৎতে ৯৪ রানের জয়ে ১৯৯৯ বিশ^কাপে হারের প্রতিশোধ নেয় পাকিস্তান।
সব মিলিয়ে ওয়ানডেতে ৩৮বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ-পাকিস্তান। এরমধ্যে বাংলাদেশ মাত্র ৫টিতে জয় পায় এবং ৩৩টিতে হেরে যায়। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের পর চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপে দেখা হয়েছিলো দু’দলের। ঐ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৭ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছিলো পাকিস্তান।
কাল জয়ের জন্য মরিয়া হয়েই মাঠে নামতে যাওয়া বাংলাদেশ-পাকিস্তান উভয় দলেই আসতে পারে কিছৃু পরিবর্তন।
বাংলাদেশ দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত (সহ-অধিনায়ক), লিটন দাস, তানজিদ হাসান, তাওহিদ হৃদয়, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, মাহেদি হাসান, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম ও তানজিম হাসান।
পাকিস্তান দল : বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, ফখর জামান, ইমাম-উল-হক, আবদুল্লাহ শফিক, মোহাম্মদ রিজওয়ান, সৌদ শাকিল, ইফতিখার আহমেদ, আঘা সালমান, মোহাম্মদ নাওয়াজ, উসামা মির, হারিস রউফ, হাসান আলি, শাহিন শাহ আফ্রিদি ও মোহাম্মদ ওয়াসিম।

সুত্র বাসস