ভোলা, মঙ্গলবার, ৩১শে মার্চ ২০২০ | ১৭ই চৈত্র ১৪২৬

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক


২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২০ রাত ১২:৪৭




বোরহানউদ্দিনে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক প্রচারণা

বোরহানউদ্দিন উপজেলা

 
বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি : ‘‘জেনে, বুঝে বিদেশ যাই, অর্থ সম্মান দুটোই পাই’’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের অর্থায়নে এবং উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ভোলার বোরহানউদ্দিনে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার বেলা ১১টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা নির্বাহি অফিসারের হলরুমে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. বশির গাজী’র সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ভোলা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারী পরিচালক মো. মোশারফ হোসেন, বোরহানউদ্দিন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ, পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদ মিয়া, বোরহানউদ্দিন থানার ওসি তদন্ত আব্দুল কাদের প্রমূখ।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. বশির গাজী বলেন, প্রবাসী ভাই’রা পদে পদে হয়রানীর শিকার হয়। এসকল হয়রানী বন্ধ করতে হবে। তাদের উপাজিত অর্থ দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতি সচ্ছল থাকে। কিন্তু আমরা অনেকেই তাদের যথাযথ সম্মান করি না। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসীদের হয়রানী বন্ধে কার্যকর ভূমিকা গ্রহণ করেছেন এসকল তথ্য তাদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। বিদেশ যেতে হলে তাদের আগে যে কোন কাজে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। যদি কোন কাজে দক্ষতা অর্জন করে সঠিক ভাবে বিদেশ যান তাহলে আর প্রতারণার শিকার হওয়ার সম্ভবনা থাকে না।
ভোলা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারী পরিচালক মো. মোশারফ হোসেন বলেন, গ্রামের মানুষ জানে না, কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস বিদেশে যাওয়া প্রবাসীদের অনেক সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে। সঠিক ভিসা যাচাই থেকে শুরু করে বিদেশ যাওয়ার সকল টাকা প্রবাসী ব্যাংকের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে। বিদেশ যেতে হলে কারো কাছে আর ঋণ নেওয়া লাগবে না। এছাড়াও প্রবাসীদের মৃত্যু এবং দুর্ঘটনা ঘটলে পরিবারকে সহযোগিতাসহ প্রবাসী সন্তানদের বৃত্তি’র ব্যবস্থা রয়েছে। সরকার প্রতিটি উপজেলা হতে ১ হাজার করে দক্ষ লোক বিদেশে পাঠানোর উদ্যোগ গ্রহণ  করেছেন। আমাদের সহযোগিতায় কেউ বিদেশ গেলে হয়রানীর শিকার হওয়ার সম্ভবনা থাকবে না। 
পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম বলেন, মজিব শতবর্ষ দিবস উপলক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রতিটি উপজেলা হতে ১ হাজার করে যুবক, যুবতী বৈদেশে নেওয়ার জন্য যে মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তা খুবই প্রশংসিত। এতে বেকার সংখ্যা অনেক কমে যাবে যুবকদের কর্মস্থানের সৃষ্টি হবে। আমরা সরকারের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। সভায় কাচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রব, কুতুবা ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান জোবায়েদ, পক্ষিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নাগর হাওলাদার, সাচড়া ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুল্লাহ মৃধা প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। বোরহানউদ্দিন উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ, স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার প্রধানগণ, ও স্থানীয় সাংবাদিক বৃন্দ এ সেমিনারে অংশ গ্রহন করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন উপজেলা যুবউন্নয়ন কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান।