ভোলা, সোমবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ই ফাল্গুন ১৪২৬

বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক


১৪ই ফেব্রুয়ারি ২০২০ রাত ১০:৪৩




দৌলতখানে গণধর্ষণের ঘটনায় অটোচালকসহ ২ জন গ্রেফতার

দৌলতখান উপজেলা



বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : ভোলার দৌলতখানে অটোরিক্সা থেকে  ডেকে নিয়ে মুখ  বেঁধে এক ক্লিনিকের কর্মী ২ সন্তানের জননীকে গণধর্ষণের ঘটনায় অবশেষে ২ জনকে পুলিশ শুক্রবার ভোররাতে গ্রেফতার করেছে। এছাড়াও ধর্ষণের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
দৌলতখান থানার ওসি (তদন্ত) সাদেকুর রহমান জানান, গনধর্ষণের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ অটোচালক গিয়াসউদ্দিন ও খলিলুর রহমান ভূট্টুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার দিন ক্লিনিকের ওই কর্মী যে অটোরিক্সা যোগে যাচ্ছিলো,সেই অটোচালকই ধর্ষণের ঘটনা সাথে জড়িত। গিয়াসউদ্দিন ধর্ষণের ঘটনার পরিকল্পনার সাথে জড়িত থাকায় তাকে গ্রেফতার করেছে বলে পুলিশ জানান। গ্রেফতারকৃত ২ জনকে  জিজ্ঞাসাবাদে জন্য আদালতে রিমান্ডের আবেদন করা হবে। এ ছাড়া ধর্ষণের ঘটনায় দৌলতখান থানায় ৩ জনের নামে ও অজ্ঞাত ২/৩ জনকে আসামী করে একটি মামলা করা হয়।
উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে দিকে  ২ সন্তানের জননী ৩৫ বছরের এক নারী প্রতিদিনের মতো ক্লিনিকের কাজ শেষ করে রাতে একটি অটোরিক্সা করে দৌলতখান উপজেলার উত্তর জয়নগর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে বাড়িতে ফিরছিলেন। রাত প্রায় ৯ টার সময় দৌলতখানের হালিমা খাতুন কলেজের সামনে অটোচালককে দিয়ে সন্তানদের জন্য বিস্কুট ও চিপস কিনছিলো। এ সময় ২ যুবক  অটোরিক্সা থেকে ওই নারীকে  কথা আছে বলে ডেকে তারা কলেজের ভিতরে নিয়ে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে। প্রায় আধাঘন্টা পর ডাকচিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় অটোচালক তাকে জামাকাপড় ছেড়া অবস্থায় উদ্ধার করে । পরে স্থানীয়দের সহায়তায় নির্যাতিত ওই নারীকে অচেতন অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে গাইনী বিভাগে ভর্তি করা হয়।