অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, শনিবার, ৬ই জুন ২০২০ | ২৩শে জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭


১২ শর্তে ভোলা জিয়া সুপার মার্কেট খোলার অনুমতি


ইসতিয়াক আহমেদ

প্রকাশিত: ১৪ই মে ২০২০ দুপুর ০২:২২

remove_red_eye

১৩৬

ইসতিয়াক আহমেদ : অবশেষে ঈদুল ফিতরকে বিবেচনায় রেখে ব্যবসায়ীদের আবেদনের প্রেক্ষিত ১২ টি শর্তে সীমিত পরিসরে ভোলা জিয়া সুপার মার্কেট খোলার অনুমতি দিয়েছে ভোলা জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক এ অনুমতি প্রদান করেন। শর্ত গুলো হলো, সরকার ঘোষিত নিধারিত সময় সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ০৪ টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখা যাবে , এক এলকার ক্রেতা অন্য এলাকায় অবস্থিত শপিংমলে কেনাকাটা বা গমন করতে পারবে না, বসবাসের এলাকা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার জন্য প্রত্যেক ক্রেতা তার নিজ নিজ পরিচয় পত্র বহন করিবেন এবং প্রবেশ মুখে প্রদর্শন করবেন, প্রত্যেক শপিং মলের প্রবেশ মুখে জীবানুনাশক স্প্রে প্যানেল স্থাপনের ব্যবস্থা করা ও হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করতে হবে, মাস্ক ছাড়া কোন ক্রেতা দোকানে প্রবেশ করেত পারবে না, সকল বিক্রেতা ও দোকান কর্মচারীকে অব্যশই গ্লাভস পরতে হবে, প্রত্যেক শপিংমল, মার্কেটের সামনে সতর্কবাণী.‘‘ স্বাস্থ্যবিধি না মানলে মৃত্যুঝুঁকি আছে’’ সম্বলিত ব্যানার টানাতে হবে,নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে দোকানে যতজন ক্রেতা অবস্থান করতে পারনে তার বেশি ক্রেতাকে দোকানে প্রবেশ করতে দেয়া যাবে না, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য প্রত্যেক দোকানের সামনে দূরত্ব মেপে মার্কিং করতে হবে, কেনাকাটা শেষে মার্কেটে অযথা জটলা বা ভিড় সৃষ্টি করা যাবে না, শপিং মলগুলোর প্রবেশ ও বের হওয়ার জন্য আলাদা পথ নির্ধারন করে দিতে হবে, মাস্ক না পড়ে কেউ যাতে মার্কেটে প্রবেশ করতে না পারে তার ব্যবস্থা করতে হবে, প্রতিদিন মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধ করার সাথে সাথে জীবানু নাশক স্প্রে ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট মার্কেট ও দোকান জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এসব শর্ত পূরণে শিথিলতা ও অপারগতা প্রকাশ করলে মার্কেট বন্ধ ও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। স্থানীয়রা জানান, আইন না মেনে এ্যাম্বেুলন্স করে মার্কেট এর ০৪ ব্যবসায়ী মালামাল আনায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০ মে থেকে জিয়া সুপার মার্কেট বন্ধ ঘোষণা করা হয়।


করোনা


আজকের সাহরীর ও ইফতারে সময় সূচী ভোলা জেলার জন্য