অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, রবিবার, ২৫শে জুলাই ২০২১ | ১০ই শ্রাবণ ১৪২৮


ভোলায় ডাক্তার পরিচয় দিয়ে ড্রাইভারের কাছে থেকে প্রতারণা করে টাকা আত্নসাত


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৪ঠা জুলাই ২০২১ রাত ০৯:৫১

remove_red_eye

১৩৩




বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক :: ভোলায় ডাক্তার পরিচয় দিয়ে রেন্টেকার ড্রাইভার  এর কাছ থেকে বিকাশে প্রতারণা করে টাকা নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার (৪ জুলাই) দুপুরে ভোলা বোরহানউদ্দিন এর রেন্টেকার ড্রাইভার রাছেল, সোহেল ও রাখাল এই প্রতারনার শিকার হন। এই ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে।
রেন্টেকার ড্রাইভার মো: রাছেল  সাংবাদিকদের জানান, দুপুরে স্থানীয় রেন্টেকার  ব্যবসায়ী শহীদউদ্দিন আমাদের ফোন দিয়ে ৩ গাড়ি লাগবে বলে ডাক্তার রেজাউল এর নম্বর দেন ০১৩০৯৮৬৭১৪৬। পরে তাকে ফোন দিলে তিনি বলেন, আমি ভোলা সদর হাসপাতাল এর ডাক্তার রেজাউল বলছি। ঢাকাতে আমাদের একটা ইন্টারভিউ আছে  ভোলা থেকে ২৬ জন লোক যাবো। আমাদের ৩ টি নতুন  হায়েস গাড়ি লাগবে। ভোলা সদর হাসপাতালে চলে আসেন। আসা মাত্রই  তিনি চেম্বারে ব্যস্ত আছেন বলে ১০ মিনিট পরে ফোন দিবে বলে জানান। কিছুক্ষন পড়ে  ডাক্তার পরিচয় সেই প্রতারক নিজেই ফোন দিয়ে আমাদের কাছে টাকা আছে কিনা জিজ্ঞাস করেন। পরে ফেরী ভাড়া বাবদ কিছু টাকা আছে বললে তিনি বিআইডবিøউটিসি একজন কর্মকর্তা তার পরিচিত আছেন বলে একটি নম্বর দেন। বলে আমাদের কথা বললে আপনার কাছে কম খরচ রাখবে। পড়ে এই নম্বরে ফোন দিলে বলে ডাক্তার সাহেব আপনাদের কথা বলছে। তাহলে ০১৭১৯৮০৮১৭ বিকাশ করেন আমি টিকেট করে রাখছি। পড়ে ঐনম্বরে ৫হাজার ১শ টাকা পাঠাই। তারপরে ঘন্টা দুইকে হাসপাতালের সামনে বসে থাকলেও ডাক্তার আর আসেনা। পরে ডাক্তার এর নম্বরে ফোন দিলে সেই নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। এর কিছুক্ষণ পরে বিকাশ দেয়া ফোন নম্বরে ফোন দিলে ঐ নম্বরটিও বন্ধ পাওয়া যায়। এর কিছুক্ষন পরে বুঝতেপারি যে  আমরা প্রতারণার স্বীকার হয়েছি। এই ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে।
বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মাজহারুল আমিন জানায়,আমার বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। যদি অভিযোগ সত্য ও প্রমানিত হয় তাহলে প্রতারকদের সাথে যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়া হবে। যাতে ভবিষ্যৎতে কেউ যেন প্রতারণা করার সাহস না দেখায়।