অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, সোমবার, ৩০শে নভেম্বর ২০২০ | ১৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭


করোনার মধ্যেও বাংলাদেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হয়নি:তোফায়েল


বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১শে অক্টোবর ২০২০ রাত ১০:৩৯

remove_red_eye

৪১





 ভোলা পূর্ব ইলিশা ও পশ্চিম  ইলিশা ইউনিয়ন আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

 
 বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন,  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কররোনার মধ্যে ইমাম মোয়াজ্জেম থেকে শুরু করে,যাদের বাড়ি ঘর নেই,খাদ্যের অভাব এমন কোন সেক্টর নেই যেখানে সহযোগীতা করেননি। যার কারণে এই করোনার মধ্যেও বাংলাদেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়নি। যার ফলে সকল ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর সাধারন জীবন যাপনের কথাও তুলে ধরে নেতাকর্মীদের অনুকরনের আহŸান জানান।

তিনি বুধবার দুপুরে ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এছাড়াও বিকালে ভোলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনেও প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তোফায়েল আহমেদ।

 তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী ৭৫ সনের পর  তিনি ৬ বছর নির্বাসনে ছিলেন। নির্বাসনে থেকেও তিনি আওয়ামীলীগকে সংগঠিত করার চেষ্টা করেছেন। ৮১ সনে সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু রক্তে গড়া আওয়ামীলীগের পতাকা তার হাতে তুলে দিয়েছিলাম। ১৭ মে সে দিন বাংলার মাটি স্পর্শ করে তিনি বলেছিলেন, আমি ক্ষমতার জন্য আসিনি। আমি এসেছি বাংলার দু:খি মানুষের জন্য। তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য।  সেই প্রতিশ্রæতি তিনি রেখেছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আওয়ামীলীগের পতাকা তুলে দিয়েছিলাম বলেই বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হয়েছে। তার হাতে আওয়ামীলীগের পতাকা তুলে দিয়েছিলাম বলেই স্বাধীনতা বিরোধী ,যুদ্ধঅপরাধী, মানবতা বিরোধীদের বিচার করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। তিতিন আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু ২টি স্বপ্ন ছিলো । একটি বাংলাদেশর স্বাধীনতা। অপরটি মানুষকে ক্ষুধা মুক্ত দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশে রুপান্তর করা।  তিনি একটি করে গেছেন। আর একটি করে যেতে পারেননি। আজকে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ করে চলেছেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী। গ্রাম আজ শহরে  রুপান্তরিত হয়েছে।  প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, একটা মানুষকে গৃহহীন রাখা যাবে না। আজ বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে। খাদ্যে স্বংসম্পূর্ন। আমরা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিয়েছি। করোনা কালে ভোলায় ৪০ হাজার মানুষকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছি। এসময় তোফায়েল আহমেদ যারা মাদক ও অসামাজিক কাজের সাথে জড়িত তাদের দলীয় কোন পদে না আনতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।
ভোলা ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মিয়া মো: সিরাজের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন। এ সময় অরো বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক আবদুল মমিন টুলু, জেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, উপজেলা আওয়ামীলীগ সম্পাদক নজরুলইসলাম গোলদার, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃইউনুছ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্পাদক হোসেন শহীদ সরোয়ারদ্দি,পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসান মিয়া প্রমুখ। পরে  পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ইউপি মেম্বার শাজাহান ( শাহজল) বেপারীকে সভাপতি , আমির হোসেন বাবুল কে সাধারন সম্পাদ নির্বাচিত ৬৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করেন। এছাড়া পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে শাহে আলম হাওলাদা কে সভাপতি ও  গিয়াস উদ্দিনকে সাধারন সম্পাদক করে ৬৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।