অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৮ই আশ্বিন ১৪২৭


চর কুকরি মুকরি | ভোলা


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪ঠা জানুয়ারী ২০২০ ভোর ০৪:৫০

remove_red_eye

২৫২

বাংলাদেশের চরাঞ্চলের সৌন্দর্য ভিন্ন রকম আনন্দ দেয় প্রকৃতি প্রেমী মনকে। রূপের আঁধার এই চরগুলোর মধ্যে শান্তিময় অপূর্ব একটি চর হলো ভোলার চর কুকরি মুকরি( chor kukri mukri bhola )। অনেকটা সাগরের কোল ঘেঁষে খরস্রোতা মেঘনা আর তেতুঁলিয়া নদীর মোহনায় এর অবস্থান। এখানেই রয়েছে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য। মেঘনার প্রচন্ড স্রোত যেন সমুদ্রেরই আরেক রূপ। মেঘনাই এই চরের জন্মদাত্রী। চরের ৩ লাখ ৬০ একর জমিতে বন বিভাগের উদ্যোগে শ্বাসমূলীয় গাছ দ্বারা বনায়ন করা হচ্ছে। শুরুতে শুধু শ্বাসমূলীয় গাছ থাকলেও পরবর্তীতে সুন্দরী, গেওয়া, পশুর ইত্যাদি গাছ যুক্ত করা হয়। বিপুল সংখ্যক কেওড়া গাছও চোখে পড়বে আপনার। এই বনায়ন চরের সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুণে। আর প্রাণীদের অভয়াশ্রম হওয়ায় নানান রকম প্রাণীর বিচরণ দেখতে পাবেন যার অনেক কিছুই হয়ত আপনি আগে দেখেন নি, নামও শোনেন নি। যেমন- কাঠ ময়ূর, মথূরা ইত্যাদি। এছাড়া চিত্রা হরিণ, বানর, বন মোরগসহ আরও অনেক প্রানী তো আছেই।


প্রকৃতি



আরও...