অনলাইন সংস্করণ | ভোলা, মঙ্গলবার, ১৫ই জুন ২০২১ | ১লা আষাঢ় ১৪২৮


স্মার্টফোন ব্যবহারে অবসাদ বাড়ছে


বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০শে মার্চ ২০২০ বিকাল ০৫:৫৭

remove_red_eye

৪৭৫

বাংলার কণ্ঠ ডেস্ক : সবার হাতেই এখন স্মার্টফোন। নতুন প্রজন্মের হাতে হাতে এখন একাধিক স্মার্টফোনের ছড়াছড়ি।

এই ইন্টারনেট নির্ভর প্রতিটি ডিভাইসে রয়েছে বিনোদনের হাজার রকমের ব্যবস্থা। এবার সেই স্মার্টফোনই কাল হতে চলেছে মানুষের।

 

অত্যাধিক স্মার্টফোন ব্যবহারে বাড়ে অবসাদের পরিমাণ। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সমীক্ষা বলছে, অত্যাধিক স্মার্টফোন ও সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহারের ফলেই বর্তমানে মানুষের অবসাদ কয়েক গুণ বেড়ে যাচ্ছে।

কানাডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন জার্নালে প্রকাশিত এই সমীক্ষায় প্রধানত অত্যাধিক স্মার্টফোন ব্যবহার ও অনলাইন গেমিংয়ের ক্ষতিকারক দিক গুলোর বিষয়ে পর্যালোচনা করা হয়েছে।

কানাডিয়ান হসপিটাল ফর সিক চিলড্রেনের ডা. এলিয়া আবি-জাউদে এই প্রসঙ্গে বলেন, অত্যাধিক স্মার্টফোনের ব্যবহার রোধে এবং একইসাথে স্মৃতিশক্তির উপর খারাপ প্রভাব রোধে, শিক্ষার অবনতি ও মানসিক সুস্বাস্থ্যের উদ্দেশ্যে আমাদের একযোগে কাজ করতে হবে। একই সাথে এর ক্ষতিকর দিক গুলো সম্পর্কে সমাজের তরুণ-তরুণীদের আরও সচেতন করতে চিকিত্সক, শিক্ষক ও পরিবারের লোকেদেরও একসাথে কাজ করার প্রয়োজন রয়েছে।

প্রয়োজনের তুলনায় বেশি স্মার্ট ফোন ব্যবহার এদিকে এই সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রায় ৫৪ শতাংশ মানুষ মনে করেছেন যে তারা তাদের প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পরিমাণে স্মার্টফোন ব্যবহার করছে।

 

অন্যদিকে প্রায় অর্ধেকের কাছাকাছি মানুষ মনে করছেন যে তারা তাদের পুরনো অভ্যাস থেকে খুব তাড়াতাড়ি বেড়িয়ে আসতে পারবেন। যদি এই অভ্যাস থেকে মুক্তির জন্য সৃজনশীল ও প্রাত্যহিক কাজকর্মে নিজেদের অনেকটা ব্যস্ত রাখার কথা বলছেন।