জুয়েল সাহা বিকাশ : ভোলায় পৃথক দুইটি বাল্য বিবাহ প্রস্তুতির সময় অভিযান চালিয়ে বর, কনে কাজীসহ ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। পরে আটককৃতদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তিন জনকে ৬ মাসের কারাদন্ড ও ছয় জনকে ১০ হাজার ও ৫ হাজার করে মোট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
বৃহস্পতিবার বিকেল ৩ টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ কাওছার হোসেন পৃথক পৃথকভাবে দুই অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে এ রায় প্রদান করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ কাওছার হোসেন জানান, বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মুলাইপত্তন গ্রাম থেকে ভোলা এসে জজ কোর্টের পাশে একটি কাজী অফিসে বাল্য বিয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বর, কনে, কনের মা, কাজী ও কাজীর সহযোগীসহ ৫ জনকে আটক করা হয়।
পরে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে কাজী মোঃ ইকবাল হোসেনকে (৪০), তার সহযোগী কাজী মোঃ হাসানকে (৪০) ও বর মোঃ সজিবকে (১৯) ৬ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এ ছাড়াও কনের মা নাছিমা বেগম (৩৫) ও কনে (১৩) কে ১০ হাজার করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
অপরদিকে একই সময় ভোলা সদরের ধনিয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে বাল্য বিয়ের প্রস্তুতিকালে অভিযান চালিয়ে বর, কনের পিতা, ও বরের দুই চাচাকে আটক করা হয়।
পরে একই সময় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বর মোঃ সবুজ (২৫), করেন পিতা মোঃ মজিব উদ্দিন (৪০) কে ১০ হাজার টাকা করে ও বরের চাচা মোঃ মহিউদ্দিন (৪৫) ও নাজির উদ্দিন (৪২) কে ৫ হাজার টাকা করে ৪ জনের মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
তিনি আরো বলেন, আমাদের অভিযান অব্যহত রয়েছে।