জুয়েল সাহা: বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দিদার সাথে চিপস্ কিনতে গিয়ে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় শান্তা চক্রবর্তী (০৫) নামে এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির দিদা (নানী) অঞ্জনা চাক্রবর্তী আহত হয়েছে। নিহত শান্ত ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের পরিমল চাক্রবর্তীর ছেলে ও স্থানী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্র। সোমবার দুপুরে ভোলা বাপ্তা এলাকার মহাজনের পোল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, সরকারি মতে গতকাল পহেলা বৈশাখ পালিত হলেও সারাদেশের সনাতন ধর্মীও মানুষরা সোমবার পহেলা বৈশাখ নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালন করছেন। বাংলা নববর্ষ সনাতন ধর্মের কয়েকটি উৎসবের মধ্যে এটি অন্যতম উৎসব। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে শান্তর দিদা তার জন্য সকালে জামা-কাপর নিয়ে আসে। নতুন জামা-কাপড় পরার পর নানীর কাছে শিশু শান্ত দাবী করে চিপস্ খাওয়ার। তখন তার দিদা তাকে নিয়ে চিপস্ কেনার জন্য বের হয়। মহাজনের পোল এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় হঠাৎ দ্রæতগামী একটি মোটরসাইকেল তাদেরকে ধাক্কা দেয়। এসময় গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বরিশাল নেওয়া পথে মারা যান শিশু শান্তা। এছাড়াও তার দিদা বরিশাল শেরেই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রয়েছেন।
ভোলা মডেল থানার ওসি মোঃ ছগির মিঞা বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক মোটরসাইকেলটিকে আটক করেছে। কিন্তু চালককে আটক করা যায়নি। এমনকি তার পরিচয়ও পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ তাকে আটককের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে।