এম ছিদ্দিকুল্লাহ/ জুয়েল সাহা \ ভোলায় বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে বার্ষিক সমাবেশ ও ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকালে ভোলা পুলিশ লাইনস্ মাঠে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে বার্ষিক সমাবেশ ও ক্রীড়া প্রতিযোগীতার উদ্বোধন করেন ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য ,আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ । প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, এই বাংলাদেশ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সৃষ্টি করেছেন । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বিশ্বের নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের বন্ধু। যার জন্য তিনি শুধু বঙ্গবন্ধু নন, তিনি বিশ্ববন্ধু। নিপীড়িত মানুষের প্রাণ প্রিয় নেতা। সাবেক এই মন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের বঙ্গবন্ধু কণ্যা চথুর্তবারের মত প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। আমাদের লক্ষ বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রুপান্তরিত করা। ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে প্রবেশ করেছে। আমাদের মাথা পিছু আয় ১৯০৯ ডলার হয়েছে। আমাদের জিডিপির গ্রোথ ৮.১ শতাংশ হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। এই বাংলাদেশকে এক সময় তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করতো ,সেই বাংলাদেশকে নিয়ে আজ পৃথিবীর মানুষ গর্ববোধ করে বলে বিস্ময়কর উথœান এই বাংলাদেশের। তার বড় প্রমান এই দ্বীপ জেলা ভোলা।
সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, আমার একটি স্বপ্ন পূরণ বাকী রয়েছে। আশা করি পূরণ হবে। ভোলা থেকে বরিশালের ব্রীজটার কাজ সমাপ্ত হলে ভোলাকে আমরা সিঙ্গাপুরের আদলে গড়ে তুলবো। তিনি বলেন,এক সময় এই ভোলায় কিছুই ছিলো না। আজ ভোলাসহ সারা বাংলাদেশের গ্রাম শহরে রুপান্তরিত হয়েছে। আমার গ্রাম আমার শহর।
ভোলা পুলিশ সুপার মো: মোকতার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশের অতিরিক্ত আইজি (এডমিন এন্ড অপস) মো: মোখলেসুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক, ভোলা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মোশারেফ হোসেন, ভোলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম হাবিবুর রহমান,জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি দোস্ত মাহামুদ, ,যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব,এনামুল হক আরজু,সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব,মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার শফিকুল ইসলাম, সহ প্রশাসনের কর্মকর্তা বৃন্দ। এরপর নৈশ ভোজের আয়োজনসহ পুলিশ লাইন মাঠে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।