বাংলার কণ্ঠ প্রতিবেদক : নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই শহীদ শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মবার্ষিকী পালন হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকালে ভোলা জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমী ভোলা জেলা শাখার আয়োজনে কেক কাটা, আলোচনা সভা,দোয়া মাহফিল, চিত্রাঙ্কন,আবৃত্তি প্রতিযোগিতা ও শিশুদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়। সকালে ভোলা জেলা শিশু একাডেমি হলরুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম ছিদ্দিক।

ভোলা জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মো: আখতার হোসেন এর সভাপত্বিতে আলোচনায় অংশ নেয় অধ্যক্ষ মো: রফিকুল ইসলাম, বুদ্ধি প্রতিবন্ধি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো: জহিরুল হক কবীর, ভোলা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহবায়ক, জনকন্ঠ ও মাছরাঙ্গা টিভির জেলা প্রতিনিধি হাসিব রহমান, ভোলা থিয়েটার সাধারন সম্পাদক আবিদুল আলম আবিদ,চ্যানেল-২৪ এর জেলা প্রতিনিধি আদিল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সঞ্চলনা করেন আবৃত্তি শিল্পি মশিউর রহমান পিংকু।
এসময় প্রধান অতিথি ভোলা জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম ছিদ্দিক বলেন, আজকে আমরা মনে আনন্দ নিয়ে শেখ রাসেল এর জন্মদিন পালন করতে পারতাম। কিন্তু ঘাতক বাহিনীর নির্মম হত্যাকান্ডেরর কারনে এই আনন্দ রূপান্তর হয়েছে বেদনায়। ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ুয়া শেখ রাসেলকেও নির্মমভাবে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের নাম বাংলার মাটি থেকে মুছে ফেলতে চেয়েছিল।
কিন্তুু তারা সফল হয়ননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে।
এসময় তিনি আরো বলেন,শেখ রাছেল ছিলেন অত্যন্ত্য মেধাবী। শিশু অধিকার বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে তার মৃত্যুর ঋন শোধ করতে হবে। শিশুদের পড়াশোনার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে।শেখ রাসেল এর জন্মদিনে এই হোক আমাদের শপথ।পাশাপাশি দেশের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে শিশুদের। তারা যেন মুক্তিযোদ্ধের গৌরবময় ইতিহাস যেনে বড় হয়। পরে শিশুদের নিয়ে জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম ছিদ্দিক কেক কেটে শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মবার্ষিকীর আনন্দ শিশুদের মাঝে ভাগ করে নেয়।এর আগে প্রতিযোগীতায় অংশ নেয়া শিশুদের মধ্যে বিজয়ীদের মাঝে জেলা প্রশাসক পুরুস্কার বিতরন করেন।
উল্লেখ্য,১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবরশেখ রাসেল ধানমন্ডির ঐতিহাসিক স্মৃতিবিজড়িত বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহন করেন।