হাসনাইন আহমেদ মুন্না : ভোলা জেলার ৭ উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ২৫টি বাসভবন নির্মাণ করে দিয়েছে সরকার। মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে জেলা এলজিইডি গত অর্থবছর এসব গৃহ নির্মাণ সম্পন্ন করেছে। মোট ২ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রতিটি ঘরের জন্য বরাদ্দ ছিলো ৮ থেকে ৯ লাখ টাকা। মূলত অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের সুবিধার জন্যই সরকার এসব বাসভবন করে দিয়েছে।
জেলা এলজিইডি নির্বাহী প্রেকৗশলী মো: আব্দুর রাজ্জাক বলেন, যে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের ভূমি আছে কিন্তু বাসগৃহ নির্মাণের সামর্থ নেই তাদেরকে সরকার ঘর করে দিয়েছে। আড়াই শতাংশ জমির উপর নির্মিত প্রতিটি ঘরে একটি বেড রুম, ড্রইং রুম, বারান্দা, বাথরুম, রান্না ঘরসহ একটি পরিবারের থাকার মত সব ধরনের ব্যবস্থা রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, জেলার ৭ উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলায় ঘর হয়েছে ৮টি, বোরহানউদ্দিনে ৪টি, দৌলতখানে ৬টি, তজুমোদ্দিনে ২টি, লালমোহনে ২টি, চরফ্যাশনে ২টি ও মনপুরা উপজেলায় ১ টি করে গৃহ নির্মাণ করা হয়েছে।
ভোলা সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডর ওয়াহিদুর রহমান বলেন, সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের বাসভবন নির্মাণ করে দেওয়ায় আমরা আনন্দিত ও উচ্ছাসিত। বিগত কোন সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। সরকারিভাবে বাসভবন পাওয়াতে সমাজে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ও কদর বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এখোনো অনেক মুক্তিযোদ্ধা অন্যের ঘরে ভাড়া থাকে। তাই তিনি আরো গৃহ নির্মাণের আবেদন জানান সরকারের কাছে।