বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক : কৈশোর বান্ধব স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে ভোলায় “যুবদের যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার স¤পর্কে তথ্য ও পরিসেবা” বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে ভোলা জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক জেলা প্রশাসক মো:মাসুদ আলম ছিদ্দিক।
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘অধিকার এখানে, এখনই’ ও ‘নারীপক্ষ’ এর যৌথ আয়োজনে কর্মশালায় সভাপত্বিত করেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মো: মাহামুদুর রহমান। এসময় আলোচনায় অংশ নেয় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মামুন আল ফারুক,ডা. আফরোজা বেগম,ডা.পরভীন আক্তার,সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাদক চন্দ্র দাস সহ আরো অনেকে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত্ব বক্তব্য রাখেন অধিকার এখানে এখনই প্রকল্পের সমন্বয়কারী সামিয়া আফরিন। অনুষ্ঠানের সঞ্চলনা করেন তারুণ্যের কন্ঠস্বর ভোলা জেলা সমন্বয়কারী আদিল হোসেন তপু। কর্মশালায় ভোলা সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের স্যাকমো, পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক,পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শিকা। এসময় বক্তব্য রাখেন তারুণ্যের কন্ঠস্বর এর ভোলা জেলা সদস্য জান্নাতুল আইরিন,আব্দুল্লাহ নোমান।
এসময় বক্তারা বলেন বয়:সন্ধিকালকেই কিশোর-কিশোরী প্রজনন ক্ষমতা লাভ করে। তাই এসময় থেকেই প্রজনন স্বাস্থ্য শিক্ষার প্রয়োজন। কিশোর-কিশোরীদের ভালভাবে নিজেদের যতœ নিতে সেবা দিতে সরকার কৈশোর বান্ধব স্বাস্থ্য সেবার জন্য কর্নার চালু করেছে। এই সেন্টার থেকে যেন কিশোর কিশোরীরা এসে যেন সেবা পায় তা নিশ্চিত করতে আমাদের কাজ করতে হবে। কিশোর-কিশোরীদের সুস্বাস্থ্যের জন্য অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা গ্রহন নিশ্চিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে আজ যারা কিশোর-কিশোরী আগামী দিনে তারা রাষ্ট্র পরিচালনা করবে। তাই তারা যেন সুস্থ ভাবে বেড়ে উঠতে পারে তার জন্য আমাদের যারযার অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে বলে জানান।
কর্মশালার মাধ্যমে আগামী দিনে কৈশোর বান্ধব স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন হবে। সেখানে কিশোর-কিশোরী ও যুবগন গোপনীয়তার সাথে স্বাস্থ্য সেবা গ্রহন করবে। সেন্টার গুলোতে প্রয়োজন অনুযায়ী ঔষুধ থাকবে কিশোর কিশোরীদের জন্য।