বাংলার কন্ঠ প্রতিবেদক : ভোলায় পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগে অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন নবাগত পুলিশ সুপার সরকার মো: কাওসার। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হলো ২০৩ পুলিশ কনস্টেবলকে। এত দিন লাখ লাখ টাকা খরচ হলেও এবার খরচ হয়েছে মাত্র ১০৩ টাকা। বৃহস্পতিবার নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত পনস্টেবলদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন পুলিশ সুপার সরকার মোঃ কাওসার। এ সময় তিনি বলেন, নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যদের ডোপটেস্ট করা হবে। কারও শরীরে মাদকের চিহ্ন পাওয়া গেলে তার নিয়োগ বাতিল করা হবে। পুলিশ সুপার বাংলার কণ্ঠকে আরও জানান, পুলিশ বিভাগে শুদ্ধাচার আনতে স্বচ্ছ নিয়োগ পরীক্ষার মধ্য দিয়েই মেধাবী ও যোগ্যদেরকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আগামী দিনগুলোতে এরা পুলিশ বিভাগের মুখ উজ্জ্বল করবেন বলে তিনি বিশ্বাস করেন।
এ সময় তিনি আরও বলেন, বিগত দিন পুলিশ নিয়োগে লাখ লাখ টাকার লেনদেন হওয়ার কথা শোনা যেত। আর এ সুযোগে এক শ্রেণির লোক হাতিয়ে চাকরি প্রার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিত। কিন্তু এবার তিনি ভোলায় আসার পর এ ব্যপারে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন। কনস্টেবল নিয়োগে স্বচ্ছতা আনার জন্য কেউ যাতে দালালের খপ্পরে না পড়েন এ জন্য পোস্টারিং, মাইকিং, পত্রিকায় বিজ্ঞাপন, লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ফলে এবারের নিয়োগ সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে হয়েছে।