আমির হোসেন,রাজাপুর থেকে : ভোলা সদর উপজেলার দক্ষিন রাজাপুর গ্রামে গত ৫ দিন ধরে বিদ্যুৎ বিহীন অবস্থায় রয়েছে। এতে করে ওই এলাকার মানুষ চরম দুর্ভোগে রয়েছে। ওই এলাকার ব্যবসায়ী ও বসবাস করা পরিবারে ফ্রিজের বহু টাকার মালামাল নষ্ট হয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানাগত শনিবার বিকাল থেকে রাজাপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাত আনার আগেই পল্লী বিদ্যুৎ তাদের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। ঝড়ের রাতে ওই এলাকার বেশ কিছু গাছ বিদ্যুতের তারের উপর উপড়ে পড়ে। আবার বিদ্যুতের খুটিও পড়ে যায়। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান,স্থানীয় লোকজন নিজেদের উদ্দ্যোগে বিদ্যুতের তারের উপর গাছ কেটে নিয়ে যায়। কিন্তুু আজ ৬ দিন ওই এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় বহু পরিবার চরম দুর্ভোগে রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, মো: সিপন টেলিকমের ২ ফ্রিজের প্রায় ২০ হাজার টাকার আইস ক্রীম নষ্ট হয়ে গেছে। তার মতো রাজাপুর বাজারের ব্যবসায়ী মো: কামালের ১২ হাজার টাকা মো: আরিফের ১০ হাজার টাকা,মো: রাজিবের ৬ হাজার টাকার আইসক্রীম নষ্ট হয়ে গেছে। কয়েকদিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় মো: আমির হোসেনের ১২ হাজার টাকা, মো: নাসিরের ৮ হাজার টাকা, মো: মনিরের ১০ হাজার টাকার বাসার ফ্রিজের মাছ নষ্ট হয়ে গেছে। তাদের মতো এমন বহু পরিবারের একই অবস্থা। এলাকাবাসীর অভিযোগ পল্লী বিদ্যুৎ তাদের দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন না করায় তাদের এতো দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।তবে এ ব্যাপারে ভোলা পল্লী বিদ্যুতের জিএম মিজানুর রহমান জানান, রাজাপুর এলাকায় ঝড়ে তাদের ৯টি পুল ভেঙ্গে গেছে। ইতি মধ্যে রিপ্লেস করা হয়েছে। তাদের ৯৫ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হবে ।