আহমেদ শফী, দৌলতখান : ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম হাওয়ায় ভোলার দৌলতখান মেঘনায় ৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত অর্থাৎ ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করেছে মৎস ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়। এসময় ইলিশসহ সকল প্রকার মাছ,অহরণ,পরিবহণ,মজুদ,বাজারজাতকরণ,ক্রয়-বিক্রিয় ও বিনোময় সম্পূর্ণ নিষেধ করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইন-১৯৫০ অনুযায়ী কমপক্ষে ১ বছর ও সর্বোচ্চ ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ডর বিদান রয়েছে। এছাড়াও ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ড রয়েছে।

বুধবার বিকালে দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জীতেন্দ্র কুমার নাথ জানান, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম হিসেবে ২২ দিন মেঘনায় মাছ ধরার ওপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই ২২ দিনের জন্য দৌলতখান উপজেলার ৮ টি বরফ তৈরীর কারখানার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার সময় জেলেরা যেনো সংসার চালাতে সমস্যা না হয় সে জন্য সরকারি ভাবে তাদেরকে চাল প্রদান করা হবে। কেউ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে জেল-জরিমানা করার বিদান রয়েছে।