চরফ্যাসন প্রতিনিধি : ভোলার চরফ্যাসনে পুনঃ স্থাপন হচ্ছে আধুনিক মানের নৌ-টার্মিনাল। গত ১১ সেপ্টেম্বর বিআইডবিøটিএ’র উদ্ধারকারি জাহাজ নির্ভিক ২শ’ ৪০ ফুট দৈর্ঘ্যের বার্জ পন্টুনটি চরফ্যাসনের বেতুয়ায় নদীর লঞ্চঘাটে পৌঁছে নতুন নৌ-টার্মিনালটি পুনঃস্থাপনের কার্যক্রম শুরু করেছে।
জানা যায়, চরফ্যাশন উপজেলার বেতুয়া লঞ্চঘাটে দির্ঘদিন ধরে একমাত্র পন্টুনটি ভেঙ্গে যাওয়ায় জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। ফলে ঢাকায় আসা-যাওয়ায় লঞ্চযাত্রীদের দূর্ভোগের সৃষ্টি হলে বিআইডবিøউটিএ’কে দায়ী করে জনসাধারণ ক্ষোভ প্রকাশ করে। দির্ঘদিন ধরে জনদূর্ভোগ চলতে থাকলেও নজরে আসেনি কর্তৃপক্ষের। ফলে লঞ্চ নোঙরসহ যাত্রিদের লঞ্চে ওঠানামায় দূর্ভোগ পোহাতে হয়।

অবশেষে স্থানীয় সাংসদ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবেক বন ও পরিবেশ জলবায়ু উপ-মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবের প্রচেষ্টায় আধুনিকমানের ২শ’ ৪০ ফুট দৈর্ঘের একটি (বার্জ পন্টুন) নৌ-টার্মিনাল পুনঃস্থাপনের কাজ শুরু হয়।
এবিষয়ে ভোলা জেলা পোর্ট অফিসার মোঃ কামরুজ্জান বলেন, ৬টি স্পার্ড ও ২টি জেটির মাধ্যমে নতুন করে উন্নতমানের এ নৌ-টার্মিনালটি পুনঃস্থাপন করা হবে যা অনেক টেকসই ও ব্যায়বহুল টার্মিনাল। বিআইডবিøউটিএ’র বিভাগীয় যুগ্ন পরিচালক রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা আধুনিক মানের পন্টুনটি নিয়ে এসেছি এবং যে স্থানে পুনঃস্থাপন করা হবে সেখানে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এতে জনসাধারণের দূর্ভোগ কমে যাবে।