আমিনুল ইসলাম, চরফ্যাশন থেকে।। ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার বলেছেন, গুজব ছড়ালে সে বাংলাদেশের যেই প্রান্তে থাকুক তার রক্ষা নেই। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। গতকাল সোমবার চরফ্যাশন উপজেলার চর মাদ্রাজ ইউনিয়নে গুজব ও সন্দেহজনক ভাবে কাউকে গণপিটুনিতে হত্যার মত জগন্য অপরাধ ও আইনকে নিজের হাতে না নিয়ে পুলিশে সোপর্দ শীর্ষক জনসচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চরফ্যাশন উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন আখন, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার চরফ্যাশন সার্কেল শেখ সাব্বির হোসেন মাদ্রাজ ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক জমাদ্দার।

চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আরেফীন সভাপতিত্বে জেলা পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার বলেন, ছেলেধরা এবং পদ্মা সেতুতে এক লক্ষ মানুষের মাথা বা কল্লা লাগবে এমন মিথ্যা গুজব রটনাকারীদেও আইনের আওতায় আনা হবে, তিনি আরোও বলেন, দেশের কুচক্রী মহলের ষড়যন্ত্র উন্মোচন করতে হবে এবং বাংলাদেশের উন্নয়ন যাতে কুচক্রী মহল বাধাগ্রস্ত করতে না পাড়ে এজন্য চরফ্যাশন তথা ভোলাবাসিকে সচেতন হতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন আখন বলেন, গুজবে কখনো কান দিবেন না আইন নিজের হাতে তুলে নিবেন না কোনো ব্যাক্তিকে যদি সন্ধ্যেহ হয় নিজ হাতে ইন তুলে না নিয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশকে খবর দিন। চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আরেফীন বলেন, দেশকে নিয়ে যারা ষড়যন্ত্র করে এবং যারা দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে তারা দেশ ও জাতির শত্রæ তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের হাতে তুলে দিন। অনুষ্ঠানে অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে মাদ্রাজ উনিয়ন আ’লীগের নেতৃবৃন্দ ইউপি সদস্য ও এলাকাবাসি উপস্থিত ছিলেন।
গুজব নিয়ে বেগম রহিমা ইসলাম কলেজে জলবায়ু ফোরামের প্রচারাভিযান\ অন্যদিকে বেলা ১১ টায় কলেজ মিলনায়তনে চরফ্যাশন উপজেলা জলবায়ু ফোরামের উদ্যোগে শশীভূষণ থানাধীন বেগম রহিমা ইসলাম ডিগ্রি কলেজে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে গুজব ও মাদক প্রতিরোধ ও সচেতনতার লক্ষ্যে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সহ-সভাপতি ও ভোলা জেলা জলবায়ু ফোরামের নির্বাহি সদস্য এম আবু সিদ্দিক সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌর কাউন্সিলর ও জলবায়ু ফোরামের নেতা আকতারুল আলম সামু। যুব জলবায়ু ফোরামের সভাপতি মনির আসলামী, প্রভাষক ফারজানা আফরোজ শখি, প্রভাষক তুহিন খন্দকার।
জেএসবি/২৯ জুলাই